বুধবারও মিলল না সুরক্ষা কবচ। বৃহস্পতিবার ফের শুনানি হবে রাজীব কুমারের আগাম জামিন মামলার।

এদিন রাজীব কুমারকে অন্তর্বর্তীকালীন কোনও সুরক্ষা কবচ দেয়নি  কলকাতা হাইকোর্ট। বিচারপতি শহিদুল্লা মুন্সি ও বিচারপতি শুভাশিস দাশগুপ্তর ডিভিশন বেঞ্চ  রাজীবের আগাম জামিন মামলার শুনানি শুরুর আগে জানিয়ে দেয়, শুনানি হবে ইন-ক্যামেরা বা রুদ্ধদ্বার কক্ষে ৷ শুধুমাত্র মামলাকারীর আইনজীবী এবং সিবিআই-এর আইনজীবী কোর্টে থাকবেন। ফলে দুপুর আড়াইটেয় এজলাস থেকে বেরিয়ে আসেন অন্যান্য আইনজীবী এবং কোর্টের ক্লার্করাও। এদিন কেবল রাজীব কুমারের আইনজীবী সওয়াল করেছেন। আগামীকাল সকাল সাড়ে দশটায় ফের শুনানি রয়েছে  কোর্টে। 

এর আগে হাইকোর্টে রাজীব কুমার সিবিআই-এর নোটিশকে চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেন। তখন রাজীবের আইনজীবী মিলন মুখোপাধ্যায় ও সিবিআই-এর আইনজীবী ওয়াই জে দস্তুরের মৌখিক আবেদনের ভিত্তিতে বিচারপতি মধুমতী মিত্র শুনানি রুদ্ধদ্বার এজলাসে হবার নির্দেশ দেন।  এদিনও সেই কথা মনে করান রাজ্যের এডিজি সিআইডি রাজীব কুমারের আইনজীবী দেবাশিস রায়। সকাল সাড়ে দশটায় বিচারপতি শহিদুল্লা মুন্সির ডিভিশন বেঞ্চে তিনি শুনানি ইন-ক্যামেরা করার আবেদন জানান। আদালত তা মঞ্জুর করে। 

সারদা মামলার তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যেতে বিধাননগর ও কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন বলে একাধিকবার দাবি করেছে সিবিআই। বর্তমান এডিজি সিআইডি রাজীব কুমারকে পাকড়াও করতে নানা জায়গায় তল্লাশি চলছে জোরকদমে। কিন্তু গ্রেফতারি এড়াতে রাজীব এখন আগাম জামিনের আবেদন জানিয়েছেন হাইকোর্টে। রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে সিবিআই-এর অভিযোগ, সারদার তদন্তে নেমে বহু নথি নষ্ট করেছেন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার। এমনকী বার বার তলব করা সত্ত্বেও সারদা মামলার তদন্তে সাহায্য করছেন না তিনি।