চক্ষু বিভাগ সরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হল  এনআরএস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে। ইতিমধ্য়েই সেজন্য় স্বাস্থ্য় ভবনে চিঠি দিয়ে জানালো হল। অবশ্য় এই স্থানান্তর নিয়ে আপত্তি জানানো হয়েছে চক্ষু বিভাগ থেকে।  এদিকে  চক্ষু বিভাগের দাবি, যে বিভাগের অস্ত্রোপ্রচারের প্রয়োজন নেই, সেই বিভাগকে স্থানান্তর করা হোক। 

আরও পড়ুন, পৌষ বিদায়ের আগেই জাঁকিয়ে নামবে শীত কলকাতায় ,পারদ নামবে হু হু করে

 চক্ষু বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে, যদি সবদিক  বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় তাহলে যেতে কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু এই স্থানান্তরের ফলে, আগের থেকে জায়গা ছোট হয়ে যাবে। তাদের কথায়, সেটা একটা বড় সমস্য়া। তবে এতে এনআরএস কর্তৃপক্ষের প্রতিক্রিয়া,  স্থানান্তকরণের প্রক্রিয়া ইতিমধ্য়েই অনেকদূর এগিয়েছে। তারা স্টুডেন্ট হেলথ হোমে পরিকাঠামো তৈরী করে দিলেই, ওখানেই চক্ষু বিভাগ স্থানান্তর করা হবে। কিন্তু  এই স্থানান্তর নিয়ে যথেষ্ট আপত্তি জানানো হয়েছে চক্ষু বিভাগ থেকে। তারা  স্বাস্থ্য় ভবনে জানিয়েছেন, যে সকল বিভাগে সাধারণত অস্ত্রোপ্রচারের প্রয়োজন পড়ে না, সেই বিভাগ গুলিকে স্থানান্তর করা হোক। 

আরও পড়ুন, বর্ধমান স্টেশনে পোর্টিকোয় ধস, ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক বলে দাবি পূর্ব রেলের

তবে স্বাস্থ্য় দফতর এ ব্য়াপারে এখনও কিছু জানাননি। তাই  তাদের সিদ্ধান্তের জন্য় অপেক্ষায় রয়েছেন চক্ষু বিভাগ। মূলত এতদিন বড় পরিসরে কাজ করা সুবিধা গলি পেয়ে এসেছে এনআরএস হাসপাতালের চক্ষু বিভাগ। কারণ চোখের জন্য় বড় অপারেশন থিয়েটার সব সময়ই প্রয়োজন। তার উপর যদি বাড়তি সুবিধা না পেয়ে, চক্ষু বিভাগের আয়তন ছোট হয়ে যায়, বেড়ে যায় দূরত্ব তাহলে সমস্য়ার সৃষ্টি হবে।  তাই স্থানান্তর নিয়ে তারা যথেষ্টই চিন্তার মুখে তারা এই মুহুর্তে।