চিনার পার্কের একটি বেসরকারি হাসপাতাল আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল৷  এবার তার ২০ দিন পর ওই হাসপাতালের এক নার্স করোনা আক্রান্ত৷  রাজারহাটের ওই নার্সের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরই তার পাড়া সিল করে দিয়েছে প্রশাসন৷ আক্রান্ত নার্সের পুরো পরিবারকে পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে।

আরও পড়ুন, করোনা সঙ্কটে সাহায্য চেয়ে ফোন ১০০ ডায়ালেই, জানাল লালবাজার

রাজারহাটের ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক সব্যসাচী শিকদার জানিয়েছেন,করোনা আক্রান্ত নার্স চিনার পার্কের একটি বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন৷  গত ১৪ এপ্রিল ওই না্র্সকে কোভিড অ্যাম্বুল্যান্সে করে নিউটাউনের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়৷ ১১ দিন পরে তার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। তবো আগে থেকে ব্যবস্থা নেওয়ায় এলাকার মানুষ অনেকটাই সুরক্ষিত। আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল চিনার পার্কের কাছে চার্নক হাসপাতাল৷ সেই সময় জানা গিয়েছিল, একজন রোগী ডায়ালিসিসের জন্য এসেছিল। এরপরেই তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপরই রবিবার বন্ধ করে দেওয়া হয় হাসপাতালটি৷ ওই রোগীর সংস্পর্শে যারা এসেছিল তাদেরকেও পাঠানো হবে কোয়ারেন্টাইনে৷ অপরদিকে এই মুহূর্তে আক্রান্ত নার্সের স্বামী, শ্বশুর, শ্বাশুড়ি এবং ছোট মেয়েকে নিউ টাউনের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে৷ এলাকায় প্রশাসনের তরফে খোলা হয়েছে হেল্প ডেস্ক৷

আরও পড়ুন, কেন্দ্রের হিসেবে ৬৪৯, রাজ্য় বলছে বাংলায় করোনা আক্রান্ত ৪৬১

হাসপাতাল সূত্রে খবর,পার্ক সার্কাসের একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে একজন রোগীকে ডায়ালিসিস করতে নিয়ে আসা হয় চার্নক হাসপাতালে৷ ডায়ালিসিসের পর ওই রোগী পুনরায় পার্ক সার্কাসের হাসপাতালে ফিরে যান৷ পরে ওই রোগীর শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেয় ও রোগীর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর রোগীর রিপোর্ট করোনা পজেটিভ আসে৷  সেই সময় চিনার পার্কের কাছে ওই বেসরকারি হাসপাতাল বন্ধ করে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কোয়ারান্টিনে পাঠানো হয়। হাসাপাতালের  দুই নার্সকেই  আইসোলেশনে রাখা হয়।  পরীক্ষা করলে জানা যায় এক নার্স করোনায় আক্রান্ত। তাঁর বাড়ি রাজারহাট এলাকায়৷ তাই এবার প্রশাসনের তরফে  ওই এলাকা সিল করে দেওয়া হয়েছে৷

 

 

 

চিন থেকে সোজা কলকাতা বিমানবন্দরে, ১০ টন করোনা-চিকিৎসার সামগ্রী নিয়ে শহরে নামল উড়ান

স্ক্রিন ছুঁয়েই প্রিয় জনের অনুভূতি, করোনা রুখতে শহরের হাসপাতালে চালু 'ভারচুয়াল ভিজিটিং আওয়ার্স'

বাবুলের কথা এবার চিকিৎসক সংগঠনের মুখে,করোনায় মৃত্যু স্বাস্থ্য়কর্তার -স্বীকার করুক রাজ্য

এবার বেসরকারিতেও করোনা চিকিৎসায় মিলবে বিনামূল্য়ের পরিষেবা, হাসপাতালের খরচও দেবে রাজ্য সরকার