সকাল থেকেই কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে চলছে বৃষ্টি। আবহাওয়া দফতর আগেই ঘন কুয়াশার জন্য় সতর্ক থাকতে বলেছিল কলকাতাবাসীকে। আর তার মধ্য়ে ঘটে গেল দূর্ঘটনা। ঘন কুয়াশার জন্য় আচমকাই রানিকুঠির জি ডি বিড়লা মোড়ে, বাসের ধাক্কায় প্রাণ হারালেন বৃদ্ধা। জানা গিয়েছে, তিনি ওই এলাকারই বাসিন্দা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু শেষ অবধি বাঁচানো যায়নি তাঁকে।

  আরও পড়ুন, লুকিয়ে ছাত্রীর ছবি ক্য়ামেরাবন্দি, কালীঘাট মেট্রো থেকে শ্রীঘরে যুবক

শুক্রবার সকাল সাড়ে আটটা নাগাত, ওই বৃদ্ধা ব্যস্ত রাস্তা পেরোনোর সময়ই এই দূর্ঘটনাটি ঘটে।  সেই সময় সিগন্য়াল ছেড়ে দেওয়ার পর রানিকুঠির জি ডি বিড়লা স্কুলের সামনে দিয়ে দ্রুত বেগে একটি বেসরকারি বাস আসছিল। আর তখনই ঘন কুয়াশায় দুদিক দেখতে না পেয়ে রাস্তা পেরোতে যান বৃদ্ধা। আর তারপরই দ্রুত বেগে বাসটি বৃদ্ধাকে ধাক্কা মারে । ঘটনাস্থলেই ওই বৃদ্ধা রক্তাত্ত অবস্থায়, মাটিতে পড়ে যান। ঘটনাস্থলের কর্তব্য়রত ট্রাফিক পুলিশ এবং স্থানীয় বাসিন্দারা, ওই বৃদ্ধাকে  আশঙ্কাজনক অবস্থায় একটি হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু  অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই মারা যান তিনি। সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই বৃদ্ধার আনুমানিক বয়েস ৭০ বছর। 

আরও পড়ুন, ঠাণ্ডা হাওয়ায় কাঁপছে কলকাতাবাসী, মেঘ কাটলেই পারদ নামবে আরও নিচে


দূর্ঘটনার পর, পরিস্থিতি হাতের বাইরে যাচ্ছে দেখে বাস চালক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করেন।  কিন্তু এলাকাবাসী ততক্ষনে ক্ষোভে ফেটে পড়েছে, প্রায় সবার চোখই ছিল ওই বাসের চালকের দিকে। তারপরই পথচারী ও স্থানীয়বাসিন্দারা মিলে তাঁকে ধরে ফেলে। বাসচালককে তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে। তবে এই ঘটনায় বাস ভাঙচুর কিংবা আগুন জ্বালানোর কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। পুলিশি সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘাতক বাসটিকে ইতিমধ্য়েই আটক করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে ওই চালককে।