Asianet News BanglaAsianet News Bangla

পার্থর বাড়িতে অনন্তদেবের ‘সুপারিশ’ তালিকা, তৃণমূলের অন্দরে ফের জলঘোলা?

স্কুলে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির বিষয়ে ইডির তল্লাশিতে এবার গ্রেফতার হওয়া মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে উদ্ধার হল জনৈক অনন্তদেব অধিকারীর একটি লেটারহেড প্যাড। নিয়োগের ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি নাম সেই প্যাডে পাওয়া গিয়েছে বলে সূত্রের খবর।

Partha Arrest Case Ananta Dev Adhikari confesses that he sent 5 names for the SSC job to Partha Chatterjee ANBSS
Author
কলকাতা, First Published Jul 26, 2022, 9:45 PM IST

স্কুলে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির বিষয়ে হাইকোর্ট ও ইডি থেকে শুরু করে বঙ্গ রাজনীতির আনাচে কানাচে তোলপাড়। তদন্তে অসহযোগিতার দায়ে গ্রেফতার হয়ে গিয়েছেন বাংলার মন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এসএসকেএমে তাঁর চিকিৎসার আবেদনও খারিজ হয়ে গিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। এরই মধ্যে তাঁর বাসভবনে ফের তল্লাশি করে আরও তথ্য হস্তগত করে ফেলল ইডি।

ইডি-র দাবি, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে যেসমস্ত নথি পাওয়া গেছে, সেগুলির মধ্যে রয়েছে অনন্তদেব অধিকারীর লেটারহেড প্যাড। এই প্যাডে রয়েছে চাকরিপ্রার্থীদের নামের তালিকা। ঘটনাচক্রে, পশ্চিমবঙ্গের এসএসসি দুর্নীতি কাণ্ডের তদন্ত চলাকালীন মুখ খুলেছেন অনন্তদেব অধিকারী নিজেই। তিনি ময়নাগুড়ি পুরসভার তৃণমূলের চেয়ারম্যান তথা তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক। তিনি বলেছেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায় শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন তাঁর কাছে চাকরিপ্রার্থীদের কয়েকটি নামের তালিকা চেয়ে পাঠিয়েছিলেন। তিনি অবশ্য এটাও জানিয়েছেন যে, তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রীর কথা শুনে তিনি ২০১৬ সালে এসএসসি পরীক্ষার মাধ্যমে চতুর্থ শ্রেণির কর্মী নিয়োগের জন্য নিজের বিধায়কের লেটারহেডে মোট ৫ জনের নাম দিয়েছিলেন। যদিও তাঁর মতে, তিনি যাঁদের নাম পাঠিয়েছিলেন, তাঁদের কেউই চাকরিতে নিয়োগ হননি। তিনি স্পষ্টতই বলেছেন, ‘‘এ সব নিয়ে এখন বিতর্ক করে কী লাভ!’’ 

অনন্তদেব অধিকারীর মন্তব্য, ‘‘আমার ছেলে মেয়ে দু’জনেই স্নাতকোত্তর পাশ, টেট উত্তীর্ণ। দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সুপারিশে ওদের নামও শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দিয়েছিলাম। যোগ্যতা থাকলেও ওদের নিয়োগ করা হয়নি। এখন বোঝাই যাচ্ছে, টাকা ছাড়া তখন নিয়োগ হয়নি।”  তিনি আরও একটি বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন যে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই নাকি তাঁর নিজের নামোল্লেখ করে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে ওই তালিকা পৌঁছে দিতে বলেছিলেন অনন্তদেবকে।

তিনি এও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, তাঁর পাঠানো তালিকা একসময়ে অগ্রাহ্য করা হয়েছিল, এখন তাঁর বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হতে পারে। অনন্তদেবের বিরূপ মন্তব্যে ঘাসফুল শিবিরে জলঘোলা শুরু হলেও ইডির দাবি, গ্রুপ ডি পোস্টের জন্য ‘শ্রী অনন্তদেব অধিকারী’র লেটারহেড প্যাডে লেখা চাকরিপ্রার্থীদের তালিকা উদ্ধার হয়েছে। তবে, ইডি উল্লিখিত অনন্তদেব এবং ময়নাগুড়ি পুরসভার তৃণমূলের চেয়ারম্যান অনন্তদেব একই ব্যক্তি কি না, তা এখনও পর্যন্ত স্পষ্ট নয়। 

আরও পড়ুন-
ইডির ব়্যাডারে এবার মানিক ভট্টাচার্য, বুধবার হাজিরার নির্দেশ তৃণমূল বিধায়ককে
'ডায়েরি তো সকলের বাড়িতেই থাকে, ডায়েরির ভিতরে কি আছে আমি জানি না' বললেন বিধায়ক তাপস রায়
মমতার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা নয়, কারণ জানালেন বিচারপতি বিবেক চৌধুরী

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios