Asianet News Bangla

ভ্য়াকসিনের নামে অ্যামিকাসিন দিতেন দেবাঞ্জন, কসবাকাণ্ডে ধৃত আরও ৩

  • কসবাকাণ্ডে ধৃত ৩, এদিন আদালতে তোলা হবে
  • টিকা দেওয়ার জন্য ১৩ জনের টিমও ছিল তাঁর
  • ভ্য়াকসিনের নামে অ্যামিকাসিন দিতেন দেবাঞ্জন
  • ক্ষতি হতে পারে কি, এত ওষুধ কোথা থেকে পেত সে
     
Police arrested 3 persons and 3 more case filed against Debanjan Deb in fake vaccine case  RTB
Author
Kolkata, First Published Jun 26, 2021, 9:40 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp


কসবা ভ্যাকসিন জালিয়াতি কাণ্ডে গ্রেফতার আরও তিন। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতরা প্রত্যেকের দেবাঞ্জনের সহযোগী। শনিবার তাঁদের আলিপুর কোর্টে তোলা হবে। এদিকে কসবা থানায় আরও ৩ টি টাকা তছরুপের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। 

আরও পড়ুন, আচমকাই ফের বাড়ল সংক্রমণ, শুধু পশ্চিমবঙ্গেই আক্রান্ত ১৫ লাখ ছুঁইছুঁই  

১৩ জনের টিমও ছিল দেবাঞ্জনের

পুলিশ সূত্রে খবর, শান্তনু মান্না নামে তালতলা থানা এলাকার এক ব্যাক্তি রয়েছেন। দেবাঞ্জন দেবের হয়ে ভুয়ো ভ্য়াকসিনেশন ক্যাম্প আয়োজন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করত অভিযুক্ত। এবং বাকি দুজনের নাম শান্তনু দাস এবং রবিন সিকদার । অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কলকাতা পুরসভার নামে ভুয়ো ব্যাঙ্ক অ্য়াকাউন্ট খোলার অভিযোগ রয়েছে। জানা গিয়েছে, টিকা দেওয়ার জন্য একটি ১৩ জনের টিমও ছিল দেবাঞ্জনের। তাঁদেরকে দিয়ে পুরো কাজটা চালাত কসবাকাণ্ডের প্রধান অভিযুক্ত।  

আরও পড়ুন, 'স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড' পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া দেশে-বিদেশে এই সুবিধা আছে কি, রইল হদিস 

প্রশ্ন উঠেছে এত ওষুধ কোথা থেকে পেত দেবাঞ্জন

ইতিমধ্য়েই শহরে একটি ফার্মাসি সংস্থার খোঁজ মিলেছে। যারা মূলত দেবাঞ্জনকে এই বিপুল পরিমাণ ওষুধ সাপ্লাই করত। তবে ফার্মাসির কর্ণধার বলেছেন, তাঁরা এটা বুঝতেই পারেন না। কারণ সব কিছু কাগজে-কলমে হয়েছে। দেবাঞ্জন দেব নিজেকে আইএএস-র পরিচয় দিয়েছেন। তাই তাঁদের বিন্দু মাত্র সন্দেহ হয়নি। কিন্তু প্রশ্নটা রয়ে গিয়েছে এত বড় টেন্ডার কলকাতা পুরসভার মাধ্যমে এত সহজে হয়ে গেল, মনে খটকা লাগল না কোনদিনও ওই ফার্মাসি সংস্থার। 

আরও পড়ুন, 'এক ছোবলে ছবি', ভোট প্রচারে উস্কানিমূলক মন্তব্যের জেরে মামলা হাইকোর্টে, ফের নোটিশ মিঠুনকে 

ভ্য়াকসিনের নামে অ্যামিকাসিন দিতেন দেবাঞ্জন, ক্ষতি হতে পারে কি ?

প্রসঙ্গত,  চিন্তা বাড়াচ্ছে, কসবার  ওই ভ্যাকসিনকে ঘিরে। ইতিমধ্যেই ওই ভ্য়াকসিন অভিনেত্রী সাংসদ মিমি চক্রবর্তী সহ আরও অনেক মানুষের শরীরে। জানা গিয়েছে, ভ্য়াকসিনের নামে অ্যামিকাসিন দিতেন দেবাঞ্জন। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, অ্যামিকাসিন  মূলত অ্য়ান্টিবায়োটিক ইনজেকশন হিসেবেই ব্যাবহার করা হয়ে তাকে। সাধারণত সেপ্টিমিয়ার মতো কঠিন সংক্রমণে এর ব্যবহার করা হয়। তবে কারও অ্য়ালার্জি থাকলে এই অ্যামিকাসিন সমস্যার সৃষ্টি করবে। ভবিষ্যতে ভুক্তভুগীদের অ্য়ান্টিবায়োটিক প্রয়োগের সুযোগ কমবে। যদিও এই ঘটনা জানতে পেরে সেদিনের কসবা ক্যাম্পে ভুয়া ভ্যাকসিন নেওয়া গ্রাহকরা রীতিমত আতঙ্কে রয়েছে।

 

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

আরও পড়ুন, রাজ্য়ের সর্বনিম্ন সংক্রমণ এই জেলায়, বৃষ্টিতে হারাতেই পারেন পুরুলিয়ার পাহাড়ে 

আরও দেখুন, বৃষ্টিতে বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা 

আরও পড়ুন, বনগাঁ লোকাল নয়, জাপানে ঠেলা মেরে ট্রেনে তোলে প্রোফেশনাল পুশার, রইল পৃথিবীর আজব কাজের হদিস 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios