মাধ্য়মিক পরীক্ষা থেকে শিক্ষা নিয়েছে সংসদ। এবার উচ্চ মাধ্য়মিকের প্রশ্নপত্র ফাঁস রুখতে কড়া হল উচ্চমাধ্য়মিক শিক্ষা সংসদ। সংসদের সভাপতি মহুয়া দাস জানিয়েছেন,পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগে স্কুলের এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ রাখা হচ্ছে৷ মূলত, হোওয়াটস অ্য়াপে প্রশ্নপত্র যাতে বাইরে না বেরিয়ে পড়ে তার জন্য়ই এই বন্দোবস্ত।

পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা যাওয়া যাবে না শৌচাগারে, নয়া বিধি উচ্চমাধ্যমিকে

১২ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে রাজ্য়ে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা৷ পরীক্ষা নির্বিঘ্নে করতে ২৫০ স্পর্শকাতর কেন্দ্রে মেটাল ডিটেক্টর বসানো হচ্ছে৷ প্রশ্নপত্রের প্যাকেটে থাকছে বারকোড। মোবাইল নেই নিশ্চিত হলেই কোনও পরীক্ষার্থীকে প্রশ্নপত্র দেবেন দায়িত্বপ্রাপ্তরা। এখানেই শেষ নয়। কারও কাছে টুকলি পাওয়া গেলে সঙ্গে সঙ্গে বাতিল হবে তার খাতা। সংসদের তরফে জানানো হয়েছে, প্রয়োজনে বাতিল করা হতে পারে রেজিস্ট্রেশনও। 

দলে থেকে সক্রিয় নন কেন, শোভন নিয়ে বঙ্গ বিজেপিকে প্রশ্ন নাড্ডার

এখানেই শেষ নয়। শিক্ষকদের উপর হামলা, পরীক্ষা কেন্দ্রে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠলেও পরীক্ষার্থীকে আরএ করা হবে। গোটা ঘটনায় স্কুলের গাফিলতি প্রমাণিত হলে বাতিল করা হতে পারে অনুমোদনও। রাজ্য়ের  পরীক্ষার সাম্প্রতিক চিত্র বলছে, এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন রাজ্যের ৪২টি ব্লকে প্রথম ২ ঘণ্টা ইন্টারনেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য স্বরাষ্ট্র দফতর৷ মালদহ,মুর্শিদাবাদ, কোচবিহার, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, জলপাইগুড়ি জেলার কিছু কিছু ব্লকে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি৷ প্রথম ভাষা বাংলার প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যায়৷ সেকারণে  উচ্চমাধ্যমিকে প্রশ্নফাঁস রুখতে আরও কড়া হচ্ছে সংসদ।

১৫ লক্ষ টাকার শৌচাগার, তৃণমূল নেতার 'কীর্তি দেখে' হতবাক প্রশান্ত কিশোর

এছাড়াও পরীক্ষার্থীদের পাশাপাশি মোবাইল নিষিদ্ধ করা হয়েছে শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীদেরও। ভুল করে মোবাইল নিয়ে চলে এলে প্রধান শিক্ষকের কাছে তা জমা রাখতে হবে তাদের। তবে পরীক্ষার্থীদের প্রবেশে মোবইল ধরা নিয়ে কোনও বাধয়বাধকতা থাকছে না। গেটেই জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে ,পরীক্ষাহলে মোবাইল ধরা পড়লে বাতিল হবে পরীক্ষা।  তবে পরীক্ষার্থীদের কাছে মোবাইল আছে কিনা তা জানতে শরীরে হাত দিয়ে সার্চ করা যাবে না। 

বৃহস্পতিবার সকাল এগারোটা থেকে শুরু উচ্চ মাধ্যমিকের প্রথমভাষার পরীক্ষা। তার আগে বুধবার দুপুরে সাংবাদিক বৈঠক করলেন উচ্চ মাধ্যমিক সংসদ সভাপতি মহুয়া দাস। তিনি জানান, গত বছরের তুলনায় এবার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ৫ হাজার।