শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ফের পুলিশের দ্বারস্থ স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়। এবার শোভনের ফোন থেকে অশ্লীল মেসেজ পাওয়ার অভিযোগ তুলেছেন রত্নাদেবী। গত ৮ নভেম্বর পর্ণশ্রী থানায় এই অভিযোগ দায়ের করেছেন রত্নাদেবী। 

রত্নাদেবীর অভিযোগ, ভাইফোঁটার দিন মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন শোভনবাবু। সেখান থেকে তিন বেরনোর পরেই শোভনের মোবাইল নম্বর থেকে তাঁকে গালিগালাজ করে বেশ কিছু মেসেজ করা হয় বলে অভিযোগ রত্নাদেবীর। যদিও কী বিষয়ে তাঁকে মেসেজ করা হয়েছিল, অথবা কী বলা হয়েছে তা ব্যক্তিগত বিষয় বলে প্রকাশ্যে আনতে চাননি রত্নাদেবী। 

আরও পড়ুন- দিদির কাছে শোভন, বিজেপির সঙ্গে সখ্য়তা বাড়ালেন রত্না

আরও পড়ুন- শোভনের ওয়ার্ডে ডেঙ্গুর আতঙ্ক, তৎপর স্ত্রী রত্না

যদিও এই মেসেজ তাঁর মোবাইল থেকে পাঠানো হয়নি বলে দাবি করেছেন শোভন। একটি বাংলা নিউজ চ্যানেলের খবর অনুযায়ী, ঘনিষ্ঠ মহলে শোভন দাবি করেছেন, বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা শুরু হওয়ার পর থেকেই রত্নাদেবীর নম্বর ব্লক করে দিয়েছেন তিনি। ফলে তাঁর মোবাইল থেকে এসএমএস পাঠানোর প্রশ্ন নেই বলেই দাবি শোভনবাবুর। 

এ দিনই ফের একবার শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে যান শোভনের বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। দু' পক্ষই অবশ্য দাবি করেছে, কলেজ সংক্রান্ত বিষয়েই আলোচনা হয়েছে। যদিও, যেভাবে গত কয়েকদিনে তৃণমূলের সঙ্গে শোভনের দূরত্ব কমেছে, তাতে শোভনের প্রত্যাবর্তন নিয়েই এ দিনের বৈঠকে পার্থ- বৈশাখী আলোচনা হয়েছে বলে জল্পনা হয়েছে। সূত্রের খবর, শোভনের তৃণমূলে প্রত্যাবর্তনের ক্ষেত্রে রত্না প্রধান অন্তরায় বলেও এ দিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে বৈশাখী অভিযোগ করেছেন।