কোভিড নীতি মেনে সেজে উঠেছে শিয়ালদহ-হাওড়া। গতকাল আদালতের নির্দেশে ইস্টার্ণ রেলের অ্যাডভোকেট কল্য়ান সরকার হাওড়া ও শিয়ালদা পরিদর্শন করলেন। করোনা আবহে এই পরিদর্শন তাই বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল। এবং লোকাল ট্রেনের ইস্যু নিয়ে বৃহস্পতিবার ফের বৈঠক রেল-রাজ্য়ের।

আরও পড়ুন, 'বাবাকে নিয়ে এমন কাজ প্রথম', গ্লাস পেন্টিং-এ সত্যজিতের সৃষ্টি উপহার সন্দীপকে

 

 

রেল বনাম সুভাষ দত্তের অভিযোগের ভিত্তিতে বিচার প্রক্রিয়া


প্রসঙ্গত, শিয়ালদহ এবং হাওড়া স্টেশনের স্বাচ্ছন্দের খামতি রেখে ২০১৭ সালের জুন মাসে পরিবেশবিদ সুভাষ দত্ত জাতীয় পরিবেশ আদালতে অভিযোগ জানান। রেল বনাম সুভাষ দত্তের অভিযোগের ভিত্তিতে বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয়। তারপরেই বুধবার আদালতের নির্দেশে ইস্টার্ণ রেলের অ্যাডভোকেট কল্য়ান সরকার হাওড়া ও শিয়ালদা পরিদর্শন করলেন। উল্লেখ্য,স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর এর বিষয়ে পর্যাপ্ত আলোচনা হলেও, কবে থেকে ট্রেন চালানো হবে সে বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।  বৃহস্পতিবার রাজ্য সরকারের সঙ্গে ফের বৈঠক করবেন রেল আধিকারিকরা। আশা করা যায় এই বৈঠকেই ট্রেন চলাচকের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।  প্রসঙ্গত, এর আগে সোমবার রাজ্য সরকারের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন পূর্ব এবং দক্ষিণ-পূর্ব রেলের কর্তারা। সেই বৈঠকে প্রাথমিক পর্বে সিদ্ধান্ত হয়েছিল ১০ থেকে ১৫ শতাংশ ট্রেন চালানো হবে। যদিও, পরবর্তীতে সেই সিদ্ধান্ত বদল করেছে রেল।

আরও পড়ুন, আজ বাঁকুড়া সফরে যাবেন অমিত শাহ, পুরো দস্তুর বাঙালিয়ানায় খাবেন 'ভাত-ডাল-পোস্ত'

 

 

যাত্রীদের সুবিধার্থে চালানো হবে পর্যাপ্ত ট্রেন


অপরদিকে,রেল-রাজ্যের বৈঠকে এখনও পর্যন্ত ঠিক হয়েছে, দ্রুত তৈরি করা হবে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর। রেল এবং রাজ্য যৌথভাবে এই স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর তৈরি করবে। যাত্রীদের সুবিধার্থে চালানো হবে পর্যাপ্ত ট্রেন। যাত্রীদের স্বাস্থের কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হবে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর স্টেশনে সুরক্ষা প্রচারের বিষয়কে গুরুত্ব দেওয়া হবে।  নিয়মিত জীবাণু নাশক প্রক্রিয়া চালানো হবে ট্রেনে।