করোনা রুখতে চূড়ান্ত সর্তকতা জারি হয়েছে পরিবহন ব্য়বস্থায়। তাই করোনার সংক্রমন এড়াতে কলকাতা বিমানবন্দর থেকে বাতিল হল একাধিক আন্তর্জাতিক বিমান। এরফলে যাত্রীরাও কিছুটা অসুবিধার সম্মুখীন হয়েছেন। কিন্তু করোনা সতর্কতার জন্য় কোনও ক্ষোভ প্রকাশের ঘটনা ঘটেনি।

আরও পড়ুন, করোনা মোকাবিলায় নয়া নির্দেশিকা, প্রতিটি হাসপাতালে ৬ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড


কলকাতা থেকে যেসব আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল করত তার মোট সংখ্যা ছিল ৩৪টি। করোনাভাইরাসের জেরে ৩৪টি আন্তর্জাতিক বিমানের মধ্যে ২১টি বিমান বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে এখনও ১৩টি বিমান চলাচল করছে। তবে যেগুলি চলছে, সেগুলিও প্রয়োজনে পরে বন্ধ করে দেওয়া হবে কিনা সেবিষয়েও চিন্তাভাবনা করছে, কর্তৃপক্ষ। বিদেশ ফেরত বিমানগুলোর যাত্রীদের সুরক্ষার জন্য বিমানবন্দর থেকে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে। এক্ষেত্রে সেলেবরাও বাদ যাননি। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বিমানবন্দর থেকে মোট তিনশোজনের মতো যাত্রীকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, পাশ করলেই খুলবে দরজা, নবান্নে বসল নয়া মেশিন

সূত্রের খবর, অপরদিকে করোনা রুখতে আগেই স্বাস্থ্য় দফতরের কর্মীরা সারাদিনে তিন দফায় বিমানবন্দরের কোয়ারেন্টাইন হেল্প ডেস্ক উপস্থিত থাকছেন। বিশেষ করে এটা আরও অধিকমাত্রায় সতর্কতা মেনে চলা হচ্ছে বিদেশ ফেরত রাজ্য়ে প্রথম করোনা আক্রান্তের তরুণের ঘটনার পর থেকেই। কলকাতা থেকে যেসব যাত্রী এই মুহূর্তে বিমান ধরতে পৌছোচ্ছেন তাঁদের বিমানবন্দরে প্রবেশ করার পর থেকে ধাপে ধাপে অনেকবার পরীক্ষা করা হচ্ছে। এবং বিমানবন্দরে উপস্থিত মেডিকেল টিম থার্মাল চেকআপ করার পরই বিমানে উঠার অনুমতি পাচ্ছেন যাত্রীরা।

আরও পড়ুন, আপাতত স্বস্তি, করোনা আক্রান্তের বাবা-মায়ের রিপোর্ট নেগেটিভ