Asianet News Bangla

গোধূলি লগনের প্রেমে মত্ত দিলীপ ঘোষ, টুইটার ভরিয়ে দিলেন আবেগভরা পোস্টের কহনে


বাংলা তাঁকে চেনে এক কঠোর মানুষ হিসাবেই, তবে এবার অধরা-অচেনা অনুভূতিকে সকলের সামনেই উন্মুক্ত করলেন দিলীপ ঘোষ। 'কিছু সময় গোধুলিকে উপভোগ করতে হয়' বলে ছবি পোস্ট করলেন সবাইকে অবাক করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।
 

State BJP President Dilip Ghosh unfolds his emotion with his mindful photography post on Twitter RTB
Author
Kolkata, First Published Jul 14, 2021, 2:54 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বাংলা তাঁকে চেনে এক কঠোর মানুষ হিসাবেই। সদ্য সমাপ্ত পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে তাঁর রণংদেহি মনোভাব রীতিমতো নজর টেনেছিল সকলের। সোজা কথা সোজাভাবে নাকি তিনি বলতে ভালোবাসেন। এমনই দাবি করে থাকেন রাজ্য বিজেপি-র সভাপতি দিলীপ ঘোষ। কিন্তু, এহেন মানুষেরও যে একটা ভালোলাগা রয়েছে. ভালোবাসা রয়েছে, কোনও কিছুর প্রতি হৃদয়ের অনুকম্পা রয়েছে- তার খবর কয় জন রাখে! সত্যি সত্যি তাঁর আবেগ এবং ভালোবাসাকে সকলের সামনেই উন্মুক্ত করলেন দিলীপ ঘোষ। এক্কেবারে সোশ্যাল মিডিয়ায় টুইটও করলেন তাঁর হৃদয়ের বাঁধ না মানা এই আবেগের। 

 

আরও পড়ুন, 'লম্বা ছুটি কাটাতে যাচ্ছি', সাতসকালে দিলীপের ফের দিল্লি সফর ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

কি সেই হৃদয়ের অনুকম্পা? প্রশ্ন অবধারিতভাবেই আসবে। আর সেটা হল এক গোধূলি লগনের ছবি। যা নিজের মোবাইলে ক্যামেরাবন্দি করেছেন দিলীপ ঘোষ। সঙ্গে লিখেছেন- 'কিছু সময় গোধুলিকে উপভোগ করতে হয়, কারণ যখন সূযাস্ত হয় তারপরেই আসে এক নতুন ভোর।'

সন্দেহ নেই খুবই এক চির শাশ্বত দর্শনকে নিজের এই ছবির মধ্যে দিয়ে মেলে ধরেছেন দিলীপ ঘোষ। সূর্যাস্তের রক্তিম মাখা আকাশ যেন আগুন খেকো হয়ে উঠেছে। প্রকৃতির দিক চক্রবাল ছেয়ে থাকা সেই ছবি-কে অগ্রাহ্য করে সফরে অগ্রসর হয়ে মন চায়নি দিলীপের। আর সেই কারণেই তিনি দুর্গাপুর এক্সপ্রেস ওয়ের উপরে গাড়ি থামিয়ে মোবাইল নিয়ে নেমে পড়েছেন প্রকৃতির অপরূপকে রূপের মতো করে ক্যামেরাবন্দি করতে। 

 

 

আরও পড়ুন, 'ভোট করিয়ে নেওয়ার এটাই উপযুক্ত সময় ', দ্রুত উপনির্বাচনের দাবিতে কমিশনে যাচ্ছে তৃণমূল

বিধানসভা নির্বাচনের আগে থেকেই বিজেপি বাংলা জুড়ে পরিবর্তনের ডাক দিয়েছিল। কিন্তু, পরিবর্তনের পথে বাংলার মানুষ সায় না দিলেও বিজেপি-র উপরে আস্থা দেখিয়েছেন অসংখ্য বাংলাবাসী। যার জেরে রাজ্যে এই মুহূর্তে প্রধান বিরোধী দল বিজেপি এবং তাঁদের বিধায়কের সংখ্যা ৭৭। ভোট শেয়ারিং-এ বিজেপি বাংলার ৩৮.১৩ শতাংশ মানুষের সমর্থন পেয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ৪৭.৯৪ শতাংশ। এই রাজনৈতিক দলের বাইরে কংগ্রেস এবং বামপন্থীদের ভোট শেয়ারিং ৫ শতাংশের নিচে নেমে গিয়েছে। তাই কারওরই বুঝতে অসুবিধা নেই যে এখন পশ্চিমবঙ্গের বুকে বিজেপি একটি শক্তি। আর সেই আত্মবিশ্বাস-ই যেন ঝড়ে পড়েছে দিলীপ ঘোষের এই টুইটার পোস্টে। তিনি আশা করছেন নতুন ভোরের। তাঁর গোধুলি লগনের তোলা ছবির মধ্যে দিয়ে সেই দ্যোতনাকে ফুঁটিয়ে তুলেছেন রাজ্য বিজেপি-র সভাপতি তথা সাংসদ।

আরও পড়ুন, ভরা বর্ষায় সর্ষে ইলিশ, সঙ্গে ২-৩ দিনের সফর, নয়া ভাবনায় 'হিলশা ট্যুরিজম'

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, রাজ্য়ের সর্বনিম্ন সংক্রমণ এই জেলায়, বৃষ্টিতে হারাতেই পারেন পুরুলিয়ার পাহাড়ে

আরও দেখুন, বৃষ্টিতে বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা 

আরও পড়ুন, বনগাঁ লোকাল নয়, জাপানে ঠেলা মেরে ট্রেনে তোলে প্রোফেশনাল পুশার, রইল পৃথিবীর আজব কাজের হদিস 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios