সরস্বতী পুজোর সময় স্কুল শিক্ষকদের জন্য নতুন নিয়ম ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি জানিয়েছেন যে, সরকারি স্কুল শিক্ষকদের আর নিজের জেলার বাইরে যেতে হবে না ৷ এখন থেকে এসএসসি পাশ করা শিক্ষকরা নিজের জেলাতেই পোস্টিং পাবেন ৷ তাই  দিনের পর দিন পরিবারের থেকে দূরে থাকতে আর হবে না,  নিজেদের জেলাতেই তারা এবার খুশি মনে শিক্ষকতা করতে পারবেন। নতুন নিয়মের কথা নিজেই ট্যুইট করে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷  আর এবার মমতার সেই সিদ্ধান্তে শিলমোহর দিল মন্ত্রিসভা।

আরও পড়ুন, চোরের পাল্লায় পড়ে বইমেলায় সর্বস্ব খোয়ালেন বাংলাদেশি বই বিক্রেতা, তদন্তে পুলিশ

সূত্রের খবর, সোমবার নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠক ছিল। সেই মন্ত্রিসভার বৈঠকেই মমতার  সিদ্ধান্তে সোমবার শিলমোহর পড়ল। এবার থেকে রাজ্য়ের সমস্ত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের নিজেদের জেলাতেই পোস্টিং পাবেন। সরস্বতী পুজোর দিন টুইট করে এমনটাই জানিয়েছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সরস্বতী পুজো হল শিক্ষকদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর সঠিক সময় ৷ তাই সরকার এই নতুন নিয়ম চালু করে রাজ্যের শিক্ষকদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করছে৷ শিক্ষকরা দেশ গড়েন এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করেন৷ কিন্তু চাকরির জন্য তাদরেই দিনের পর দিন পরিবারের থেকে দূরে থাকতে হত৷ এতে মানসিকভাবে তারা বা তাদের পরিবার খুশি হতে পারত না৷ যাদের হাতে দেশের ভবিষ্যৎ তৈরি চাবিকাঠি, তারাই যদি মানসিক কষ্টে থাকেন, তাহলে কীভাবে নিজেদের কাজে তারা মন দেবেন। তাই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার৷ 

আরও পড়ুন, ছাত্রদের দাবিতে উত্তাল প্রেসিডেন্সি, সকাল থেকে ঘেরাও উপাচার্য

স্কুল সর্ভিস কমিশন গঠন হওয়া পর থেকে এই কমিশনের মাধ্যমে সরকারি ও সরকার পোষিত স্কুলগুলিতে শিক্ষক শিক্ষিকা নিয়োগ হয় । আর তাতে বেশির ভাগ শিক্ষক শিক্ষিকার পোস্টিং হয় নিজের বাসস্থান থেকে বেশ দূরের স্কুলে।  এই সমস্যায় ভুক্তভাগী হাজার হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা। ‌ যেহেতু প্রথম দিকে স্কুল সর্ভিস কমিশনে নিয়োগের ক্ষেত্রে বদলির কোন নিয়ম ছিল না। যার দরুণ বহুদিন এ সমস্যার কোন সমাধান সুত্রও ছিল না। এবার তার পাকাপাকিভাবে সমাধানের পথ বেরল।