প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ পড়ুয়াদের। পড়ুয়াদের দাবি, হিন্দু হস্টেলের সমস্যা সমাধান করতে হবে। তাই সোমবার সকাল থেকে ফের আন্দোলন শুরু করেন তাঁরা। সমস্যার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে,দাবি ছাত্রছাত্রীদের। 

আরও পড়ুন, চোরের পাল্লায় পড়ে বইমেলায় সর্বস্ব খোয়ালেন বাংলাদেশি বই বিক্রেতা, তদন্তে পুলিশ

পড়ুয়াদের অবস্থানের জেরে দীর্ঘদিন ধরে ঘেরাও উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া। হিন্দু হস্টেল নিয়ে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং পড়ুয়াদের মধ্যে বিবাদ লেগেই রয়েছে। বেশ কয়েকদিন আগে এই হস্টেলের ৩, ৪ এবং ৫ নম্বর ওয়ার্ড খালি করার দাবি জানায় ছাত্রছাত্রীরা। অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দাবিপূরণের আশ্বাস দিলেও সমস্যার  এখনও সমাধান হয়নি। তাঁদের দাবিগুলি হল, হস্টেলের মেস স্টাফের সংখ্যা বাড়ানো এবং বিনা নোটিসে কোনও কারণ ছাড়া মেস স্টাফ ছাঁটাই করার জবাব তলব। 

আরও পড়ুন, শহরে ফের পেটিএম প্রতারণা, গ্রেফতার ৫

সূত্রের খবর, হিন্দু হস্টেল আন্দোলনে ছাত্রীদের ক্যাম্পাসে ঢুকতে কেন বাধা দেওয়া হল, সে উত্তরও চায় আন্দোলনকারীরা। যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারকে পদ থেকে অপসারণেরও দাবি জানিয়েছেন প্রেসিডেন্সির পড়ুয়ারা। এর পাশাপাশি ছাত্রছাত্রীদের দাবি, হস্টেল আবাসিকদের নিয়ে ওয়েলফেয়ার কমিটি গঠন করতে হবে।  সোমবার দুপুর প্রায় ১টা থেকেই প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়াকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন পড়ুয়ারা। পোস্টার, ব্যানারের সঙ্গে 'আজাদি' স্লোগান দিতে থাকে আন্দোলনকারীরা।