Asianet News BanglaAsianet News Bangla

প্রাপ্য টাকা আদায় করেই ছাড়বো , হুঁশিয়ারি স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজ-এর সভাপতি শ্যামলকুমারের

 সরকারের পুনর্বিবেচনার আর্জি  খারিজ হাওয়ার পরও  কর্মীরা কী পারবে তাদের  বকেয়া টাকা সরকারের থেকে উদ্ধার করতে ? প্রশ্ন উঠলে  স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজ-এর সভাপতি শ্যামলবাবুর সটান জবাব " সরকার টাকা না দিলেও আমরা আমাদের প্রাপ্য টাকা আদায় করে তবেই ছাড়বো।" 

State govt employees organization says Government is now compelled to pay their DA
Author
First Published Sep 22, 2022, 3:07 PM IST

শুধু আইনি লড়াই নয়, এর পর রাস্তায় নামব, বকেয়া আদায় করেই ছাড়ব - ডিএ সংক্রান্ত মামলার রায়ে সরকারের পুনর্বিবেচনার আর্জি খারিজ হবার পর ঠিক এইরকম ভাষাতেই সরকারকে হুমকি দিলেন রাজ্যের কর্মী সংগঠন।  বৃহস্পতিবার আদালতের সিদ্ধান্তে যারপরনায়  খুশি রাজ্যের সরকারি কর্মী সংগঠন গুলি। আদালতের এই সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর কনফেডারেশন অফ স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজ-এর সভাপতি শ্যামলকুমার মিত্র বলেন, “আমরা জিতব। কর্মচারীরা জিতবে।"
ডিএ র বকেয়া টাকা আদায়ের জন্য এতদিন দাঁতে দাঁত চিপে লড়াই করে গেছেন তারা । কিন্তু  আদালতের এই নির্দেশ কি পারবে কর্মীদের  বকেয়া টাকা সরকারের থেকে উদ্ধার করতে ? প্রশ্ন উঠলে  শ্যামলবাবু জানান  সরকার টাকা না দিলেও তারা তাদের প্রাপ্য টাকা আদায় করে তবেই ছাড়বেন।


রাজ্য সরকার ডিএ দিচ্ছেন না। বরং  সেই ডিএ টাকাতেই নাকি  চলছে কন্যাশ্রী ,যুবশ্রী ও লক্ষ্মী ভান্ডারের মতো সরকারি প্রকল্পগুলো ।রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে এইরকম  অভিযোগ বার বার তুলেছে  সরকারি কর্মচারীরা। বকেয়া ডিএ র টাকা আদায়ের জন্য দফায় দফায় বিক্ষোভও করতে দেখা গিয়েছে  তাদের।  সরকারি কর্মী সংগঠনগুলির এই নিরন্তর প্রতিবাদ অবশেষে কার্যকর হলো বৃহস্পতিবার । আদালতের নির্দেশে  সরকারি কর্মীদের সমস্ত পাওনা, মহার্ঘ ভাতা, পঞ্চম বেতন কমিশনের ৩৪ শতাংশ, ষষ্ঠ বেতন কমিশনের ৩৫ শতাংশ সমস্ত ভাতা  বকেয়া-সহ মিটিয়ে দিতে এবার বাধ্য হবে রাজ্য সরকার।  

বিগত দিন গুলিতে,  সরকারের ডিএ বকেয়া রাখার বিরুদ্ধে , যে প্রতিবাদ হেনেছিল সরকারি কর্মচারীরা, তাতে সরকার কোনোভাবেই কর্ণপাত করেনি এতদিন । তাই  ধৈর্য হারিয়ে শেষপর্যন্ত কর্মচারীদের  আদালতের দ্বারস্থ  হতে হয়।  গত ২০ মে আদালত নির্দেশ দেন যে কর্মচারীদের সমস্ত ভাতা অবিলন্বে রাজ্য সরকারকে মিটিয়ে দিয়ে হবে। এরপরই রাজ্য সরকার  দ্বারস্থ হয় হাই কোর্টের। এই রায়ের  পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়েই একটি মামলা করে তারা। বৃহস্পতিবার সেই  আর্জিই খারিজ করে দেয় আদালত। 

কনফেডারেশন অফ স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজ-এর সভাপতি বলেন, “গত ২০ মে আদালত রায় দেওয়ার পরেও আমরা রাজ্য সরকারের কাছে চিঠি দিয়ে বিনীত ভাবে বলেছিলাম, আমরা সব রকম ভাবে সহযোগিতা করতে রাজি, আপনারা ডিএ-র রায় কার্যকর করুন। কিন্তু দুর্ভাগ্য, রাজ্য সরকার কর্মীদের সহযোগিতার মনোভাব বোঝে না। তাই এর পর থেকে আমরা রাজ্য সরকারের সঙ্গে সার্বিক বিরোধিতার নীতিতে যাচ্ছি। সরকারের সঙ্গে কোনও রকম সহযোগিতা আমরা করব না।”

শ্যামলকুমারের স্পষ্ট হুঁশিয়ারি, শুধু আইনি লড়াই নয়। এর পর তাঁরা রাস্তায় নামবেন। সরকারের কাছ থেকে বকেয়া আদায় করেই ছাড়বেন। তাঁর কথায়, “সব ডিএ দেওয়া হয়ে গিয়েছে, এ কথা আদালতে দাবি করেছিলেন রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল (এজি)। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এই  বিষয়ে সমস্ত তথ্য আমরা ইতিমধ্যেই দিয়েছি আদালতকে ।” 

আরও পড়ুন -

DA verdict: ডিএ নিয়ে হাইকোর্টের রায়ে হতাশ তৃণমূল, পাল্টা তোপ বিজেপির

ডিএ মামলায় রাজ্যের হার, 'আবেদনের যৌক্তিকতা নেই '- বলল কলকাতা হাইকোর্ট

ডিএ মামলায় সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে রাজ্য সরকার, পুরনো রায় বহাল রাখল হাইকোর্ট

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios