সকালে- রাতে থাকলেও কলকাতায় দিনের বেলায় শুরু হয়ে গেল শীত বিদায়ের প্রস্তুতি। আবহাওয়া শুষ্ক থাকলেও জাঁকিয়ে শীত পড়ার সম্ভাবনা কম মহানগরে। আপাতত সন্ধ্যেতে হালকা শীতের আমেজ পাবে কলকাতাবাসী। এমনই জানান দিচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। 

আরও পড়ুন, বাংলার আগে সিএএ বিরোধী বিল পাশ পঞ্জাবে, সদিচ্ছা নিয়ে কী বলল তৃণমূল

তবে দক্ষিণবঙ্গে শুষ্ক আবহওয়া থাকলেও উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি হবে। চলবে রবিবার পর্যন্ত। দার্জিলিং,কালিম্পং জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার কোচবিহারে হাল্কা থেকে মাঝারি  বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। তবে উত্তরবঙ্গে ঢুকলেও রবিবার বৃষ্টি দক্ষিণবঙ্গের বাঁকুড়া,পুরুলিয়া, দুই বর্ধমান, বীরভূম, পশ্চিম মেদিনীপুরের বৃষ্টি হতে পারে। তবে এদিকে বৃষ্টি হলেও তার পরিমাণ খুবই কম থাকবে। শীত ছেড়ে বৃষ্টি হওয়ায় মাঝারি কুয়াশা পড়বে দক্ষিণবঙ্গে। যার জেরে সকালে যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে সমস্য়া হতে পারে। 

আরও পড়ুন, দিনে শীত উধাও হবে কলকাতায়, উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা

আগামী কয়েকদিন বাড়বে দিনের তাপমাত্রা। রাতের তাপমাত্রা একই থাকার সম্ভাবনা। আজ থেকেই দার্জিলিং, কালিম্পংয়ে বৃষ্টি। আগামীকাল ও পরশু উত্তরবঙ্গের ওপরের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি সিকিমে থাকছে তুষারপাতের সম্ভাবনা। তবে কোনওভাবেই কলকাতায় বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। তবে হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা হবে বেশ কিছু জেলায়। নদিয়া, দুই ২৪পরগনা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব মেদিনীপুরে যথেষ্ট কুয়াশার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। মূলত,পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাব এ রাজ্যে বৃষ্টি হচ্ছে। পূবালী হাওয়ায় ঢুকছে জলীয়বাষ্প। যার প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গে কুয়াশা তৈরি হচ্ছে।

আরও পড়ুন, অনুপ্রবেশ রাজ্য়ের সমস্য়া, মানলেন সাহিত্য়িক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়

কলকাতায় সকালে হালকা কুয়াশা পড়লেও সারাদিন মেঘমুক্ত পরিষ্কার আকাশ দেখতে পারবে মহানগরবাসী। গত সপ্তাহ থেকেই কলকাতার তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করেছে।  যা স্বাভাবিকের এক ডিগ্রি উপরে। গতকাল দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের ৪ ডিগ্রি উপরে ছিল। কলকাতার বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ ৪০ থেকে ৯৬ শতাংশ। একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝার  প্রভাবে জম্মু কাশ্মীর হিমাচল প্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডে তুষারপাতের সম্ভাবনা। বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি শিলা বৃষ্টি হতে পারে পঞ্জাব হরিয়ানা রাজস্থান চণ্ডীগড় দিল্লি,উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ এ। শনিবার জম্মু-কাশ্মীরের ঢুকছে আরও একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা।