বাগবাজার ঘাটে তরুনীর বস্তাবন্দি দেহ ভেসে আসার পরই চাঞ্চল্য় ছড়াল এলাকায়। বিশেষ সূত্রের খবর, মৃতা ওই তরুনীর এখনও পরিচয় জানা যায়নি। এই ঘটনার খবর পেয়েই ইতিমধ্য়েই উত্তর বন্দর থানার পুলিশ তদন্তে নেমেছে।

আরও পড়ুন, ডাবল সেঞ্চুরির পথে পেঁয়াজ, কলকাতার পাঁচটি বাজারে বন্ধ হতে পারে বিক্রি

বৃহস্পতিবার সকালে আর দশটা দিনের মতই ভীড় ছিল বাগবাজার ঘাটে।  হঠাৎই কয়েকজনের নজরে আসে একটি বস্তা।  কৌতুহলবশত ওই বস্তাটি খুলতেই দেখা যায় হলুদ ও সবুজ রঙের শাড়ি। আর তারপর শাড়িটি বের করার চেষ্টা করতেই , বস্তা থেকে উদ্ধার করা হয় ওই তরুণীর দেহ। দ্রুত দেওয়া হয় উত্তর বন্দর থানায়। খবর পেয়েই পুলিশ  ঘটনাস্থলে আসে। ইতিমধ্য়েই ওই তরুণীর দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। কিন্তু  ওই তরুণীর এখনও কোনও পরিচয় জানা যায়নি।

আরও পড়ুন, আজ মরশুমের শীতলতম দিন , পারদ নামল ১৬ এর নিচে শহর কলকাতায়

পুলিশি সূত্রে জানানো হয়েছে,  তরুণীর দেহটি  পচে গিয়েছে আর মাথায় গভীর ক্ষত রয়েছে। বিকৃত হয়ে গিয়ে মুখও চেনা যাচ্ছেনা। বছর ৩০-র ওই তরুণীর দুই হাতেই ট্য়াটু আঁকা রয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, প্রথমে ওই তরুণীকে খুন করা হয়েছে। তারপর খুনের প্রমান লোপাটের জন্য়ই বস্তায় ভরে গঙ্গায় ভাসিয়ে দিয়েছে দুষ্কতিরা। তবে শেষ কয়েকদিনে বাগবাজার এলাকার নিকটবর্তী থানা গুলিতে কোনও নিখোঁজের ডাইরি করা হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তদন্তকারীরা মতে,  তার ভিত্তিতেই  ওই তরুণীর পরিচয় পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।