করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় রাজারহাটে 'কোয়ারান্টাইন' কেন্দ্র তৈরি করতে চলেছে রাজ্য সরকার।  এখানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা করা হবে।কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের অধীন চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের রাজারহাটের সেকেন্ড ক্যাম্পাসটি নিতে চলেছে রাজ্য। এই ভবনটিতেই আপাতত 'কোয়ারান্টাইন' কেন্দ্র তৈরি করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে রাজ্য় সরকারের তরফে।

আরও পড়ুন, মাস্কের ভেতর কোনও চিরকূট নেই তো, পরীক্ষাকেন্দ্রের ভেতর ধন্দে শিক্ষকরা

সূত্রের খবর, গতকাল শনিবার রাজ্য়ের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার রাজারহাটে চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যানসার ইন্সটিটিউটের নবনির্মিত হাসাপাতালটি নিচ্ছে। সেখানেই চিকিৎসা কেন্দ্র করা হবে করোনা আক্রান্তদের জন্য। রাজ্য় সহ দেশ নোবেল করোনা ভাইরাস  মুক্ত হয়ে গেলে ভবনটি আবার ফিরিয়ে দেওয়া হবে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের হাতে।  

আরও পড়ুন, জল্পনায় জল ঢেলে রত্না বললেন, "বৈশাখীর সঙ্গে বৈঠকের কোনও সম্পর্কই নেই, আমি নিজেই সরে এসেছি"

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য়, রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত রাখা হয়েছে করোনা ভাইরাসের আক্রান্তদের জন্য। সৌদি আরব থেকে আসা মুর্শিদাবাদের এক যুবকের মৃত্যুর পর আতঙ্ক ছড়িয়েছিল। যদিও পরে জানা যায়, তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশ মেনে দ্রুত বহরমপুরের পুরনো মাতৃসদন হাসপাতালে মুর্শিদাবাদ জেলায় স্বাস্থ্য দফতর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট আইসোলেসন ওয়ার্ড চালু করেছে। এই মুহূর্তে বিশ্বের প্রায় ১২৩ টি দেশে কামড় বসিয়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনা। এক লক্ষ পচিশহাজারেরও বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত। চিনে মৃতের সংখ্যা তিনহাজার ছাড়িয়েছে। ভারতেও আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বেড়ে আশি ছাড়িয়েছে। তাই করোনা মোকাবালিয় কোনও রকম ঝুঁকি নিতে রাজি নয় রাজ্য় সরকার।

আরও পড়ুন, করোনা মুক্ত শরীর, বেলেঘাটা আইডি থেকে ছেড়ে দেওয়া হল সকলকে