কালী পুজোর পর থেকেই রাজনৈতিক প্রচার অভিযান শুরু করতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। শনিবার এমন ইঙ্গিত দিলেন বর্ষীয়ান তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা দীর্ঘদিনের সাংসদ সৌগত রায়। বিধান নগর বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক সুজিত বসুর ডাকা এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে এসে এই মন্তব্য করলেন তিনি। সৌগত রায় জানিয়েছেন, কালী পুজোর পর থেকেই ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে এলাকায় এলাকায় কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। আর বসে থাকলে হবে না। এবার লড়াই শুরু করতে হবে। 

আরও পড়ুন: একুশের বিধানসভা ভোটের আগে ফের কংগ্রেসে ভাঙন, তৃণমূলে যোগ দিলেন বাদুড়িয়ার বিধায়ক

প্রসঙ্গত ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে ইতিমধ্যেই ঘুঁটি সাজাতে শুরু করে দিয়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। রাজ্যে ঘুরে গেছেন রাজ্য বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি, পরবর্তীতে ঘুরে গেলেন বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। অন্যদিকে সেই অর্থে বিধানসভা নির্বাচনের জন্য এখনও প্রস্তুতি শুরু করেনি তৃণমূল। সৌগত রায়ের বক্তব্য মানলে কালী পুজোর পর থেকেই জোর কদমে ময়দানে নামবে তৃণমূল কংগ্রেস। 

আরও পড়ুন: সৌরভ না শুভেন্দু , কে হবে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী, মুখ খুললেন অমিত শাহ

যদিও ইতিমধ্যেই জেলাভিত্তিক নতুন কমিটি তৈরি করেছে তৃণমূল। বিভিন্ন জেলার কমিটি আগামী বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজানো হয়েছে। যে সমস্ত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দুর্নীতি কিংবা দল বিরোধী কাজের অভিযোগ রয়েছে, তাদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে কমিটি থেকে  তৃণমূল নেতাদের দাবি, নতুন কমিটিকে সামনে রেখেই কালী পুজোর পর থেকে জোর কদমে জেলাভিত্তিক কর্মসূচি শুরু করবেন  দল। যদিও তার আগে সমস্ত বিধায়কদের নিয়ে নির্বাচনে আগাম প্রস্তুতি সভা করার সম্ভাবনা। পুজোর আগেই এই ধরনের প্রস্তুতি সভা হওয়ার কথা থাকলেও পরে তা পিছিয়ে যায়।