Asianet News BanglaAsianet News Bangla

KMC Election 2021: মনোনয়ন প্রত্যাহার করেননি, তনিমা-সচ্চিদানন্দকে সাসপেন্ড করবে তৃণমূল

শনিবার ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন। ৭৩ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কো-অর্ডিনেটর রতন মালাকার মনোনয়ন দিয়েও, শুক্রবার তা প্রত্যাহার করে নেন। কিন্তু, সচ্চিদানন্দ বা তনিমা মনোনয়ন প্রত্যাহার করেননি।

TMC will suspended TanimaChatterjee and Sachchidananda Banerjee bmm
Author
Kolkata, First Published Dec 6, 2021, 4:13 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আগেই কড়া বার্তা দিয়েছিল দল। বলা হয়েছিল, টিকিট না পেয়ে কেউ যদি অশান্তি করার চেষ্টা করেন তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে দল। এমনকী, তাঁকে দল থেকে বহিষ্কারও করা হতে পারে। আর কলকাতা পুরভোটে (Kolkata Municipal Corporation Election) তৃণমূলের (TMC) গলার কাঁটা হয়ে রয়েছে ৭২ ও ৬৮ নম্বর ওয়ার্ড। ওই দুই ওয়ার্ডে দলের টিকিট না পেয়ে নির্দল প্রার্থী হিসেবে লড়াই করছেন সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায় (Sachchidananda Banerjee) ও তনিমা চট্টোপাধ্যায় (TanimaChatterjee)। দলের তরফে কড়া বার্তা দেওয়ার পরও মনোনয়ন প্রত্যাহার (Withdrawal of nomination) করেননি তাঁরা। আর সেই কারণেই তৃণমূল থেকে তাঁদের সাসপেন্ড (Suspend) করা হবে জানিয়ে দিলেন দক্ষিণ কলকাতা জেলা তৃণমূলের সভাপতি দেবাশিস কুমার (Debasish kumar)।

শনিবার ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন। ৭৩ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কো-অর্ডিনেটর রতন মালাকার মনোনয়ন দিয়েও, শুক্রবার তা প্রত্যাহার করে নেন। কিন্তু, সচ্চিদানন্দ বা তনিমা মনোনয়ন প্রত্যাহার করেননি। ফলে নির্বাচনে নির্দল প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন তাঁরা। তাঁদের দু'জনেরই প্রতীক জোড়াপাতা। সেই কারণেই এবার তাঁদের দল থেকে সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

আরও পড়ুন- আবহাওয়া খারাপ, ট্রেনেই মালদহ রওনা দিলেন মমতা

উল্লেখ্য, এবার কলকাতা পুরসভার ভোটে পুরনো কাউন্সিলরদের ৩৯ জনকে টিকিট দেয়নি তৃণমূল। সেই তালিকায় রয়েছেন ৭২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর ও কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায়। দলের টিকিট না পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে নির্দল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন তিনি। অন্যদিকে, ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডে, তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে প্রয়াত সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বোন তনিমা চট্টোপাধ্যায়ের নাম ঘোষণা করা হয়েছিল দলের তরফে। সেই মতো প্রচারও শুরু করে দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু, তারপরই তাঁর কাছ থেকে দলীয় প্রতীক ফেরত নিয়ে বিদায়ী কোঅর্ডিনেটর সুদর্শনা মুখোপাধ্যায়কে টিকিট দেয় তৃণমূল। এরপর দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন তনিমা। তখন নির্দল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন। 

যদিও তাঁদের এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছে না দল। কয়েকদিন আগেই দলের নেতা-কর্মীদের নিয়ে একটি বৈঠক করেছিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তিনি বার্তা দিয়েছিলেন, যাঁরা টিকিট পাননি, তাঁরা যদি অশান্তি করেন বা দলকে হারানোর চেষ্টা করেন, তাহলে তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

আরও পড়ুন- মঙ্গলবার দিল্লি যাচ্ছেন অভিষেক, বৈঠক করবেন দলীয় সাংসদদের সঙ্গে

এরপর তনিমাকে দলের পক্ষ থেকে কোনওরকম বোঝানোর চেষ্টা না হলেও, সচ্চিদানন্দের সঙ্গে কথা বলে সমঝোতায় আসতে চেয়েছিল তৃণমূল। দলের তরফে তাঁদের সঙ্গে কথাও বলা হয়েছিল। কিন্তু, কোনওভাবেই তাঁদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করার জন্য রাজি করানো যায়নি। তাই খানিক বাধ্য হয়েই এবার তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে দল। 

এ প্রসঙ্গে দেবাশিস কুমার বলেন, "দক্ষিণ কলকাতা জেলার অধীন ৮৪টি ওয়ার্ডে যে যেখানে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্দল প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়েছেন তাদের রেয়াত করবে না দল। দলীয় সংবিধান মেনে ওই সব নির্দল প্রার্থীদের দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।" তবে দল কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও নিজেদের অবস্থান থেকে এখন সরতে নারাজ তনিমা ও সচ্চিদানন্দ। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios