কলকাতায় আমফান প্রবেশ করতে আর মাত্র কয়েক মুহূর্ত বাকি। ঝড়ের আগেই বুধবার সকাল থেকে আকাশের মুখ ভার। ভোর থেকে হালকা মাঝারি বৃষ্টি শুরু হয়েছে একাধিক এলাকাতে। আমফান প্রবেশের তিন ঘণ্টা আগে থেকে বাড়ে ঝোড়ো হাওয়া ও বৃষ্টির দাপট। দুপুর দুটো নাগাদ হাওয়ার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৬৯ কিলোমিটার প্রতিঘণ্টা। বিকেল চারটের সময়ই ঝড়ের গতিবেগ ১০০ কিলোমিটার প্রতিঘণ্টার গণ্ডি পার করে। 

আরও পড়ুনঃ Cyclone Amphan live updates: বাংলায় আছড়ে পড়তে চলেছে আমফান, দিঘার সমুদ্রতট থেকে ক্রমশই কমছে দূরত্ব

ইতিমধ্যেই শহরের বেশ কিছু এলাকাতে বৃষ্টির জন্য জল জমতে শুরু করেছে। যদিও পুরসভা থেকে জানানো হয়েছে নিকাশি ব্যবস্থার ওপর নজর রাখা হচ্ছে। দুপুর ২টো পর্যন্ত কলকাতার বিভিন্ন এলাকা বৃষ্টিপাতের পরিমাণ- মানিকতলায় ৪০ মিলিমিটার, বেলগাছিয়াতে ৩৫ মিলিমিটার, ধাপা ২২ মিলিমিটার, তোপসিয়ায় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ২৯ কিলোমিটার, উল্টোডাঙ্গাতে বৃষ্টি হয়েছে ৩৭ মিলিমিটার, কলেজস্ট্রিট চত্বরে বৃষ্টি হয়েছে ৪০ মিলিমিটার,চেতলাতে বৃষ্টি হয়েছে ২৫ মিলিমিটার, বালিগঞ্জে বৃষ্টি হয়েছে ৩৩ মিলিমিটার, কালিঘাটে বৃষ্টি হয়েছে ২৮ মিলিমিটার, দত্ত বাগানে বৃষ্টি হয়েছে ৩১ মিলিমিটার, বেহালা বৃষ্টি হয়েছে ২৩.৮ মিলিমিটার। 

তবে দুপুরের পর থেকেই বৃষ্টির দাপট ক্রমেই বেড়েছে। বর্তমানে কলকাতার বুকে সর্বত্র শুরু হয়েছে ভারী বর্ষণ। কিছুক্ষণের মধ্যেউ ঢুকে পড়বে ঝড়। তার আগেই একাধিক জায়গাতে ভেঙে পড়েছে গাছ, পাশাপাশি ভেঙে পড়েছে বেশ কিছু এলাকায় পুরোনো বাড়ির কার্নিশ। ঝড় থামতে সময় লাগব বৃহস্পতিবার সকাল। তবে আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো হচ্ছে বৃহস্পতিবার সকালের আগে শক্তি কমবে না এই ঝড়ের। 

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

সাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা