রাজ্য়ে বাড়ল করোনা সুস্থতার হার। একদিনে শরীরে করোনা নিয়ে মৃতের সংখ্য়া দাঁড়াল ৩৯। পশ্চিমবঙ্গের করোনা বুলেটিন বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৭ হাজারের বেশি টেস্ট হয়েছে। একাধারে কমেছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা৷ সোমবারের করোনার পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্য়ে আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজার ১১২ জন৷ গতকাল যা ছিল ২ হাজার ৩৪১ জন৷ 

যদিও চিন্তা বাড়াল আক্রান্তের সংখ্যা। সংখ্য়াতত্ত্ব  বলছে, এই পর্যন্ত রাজ্য়ে  মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০ হাজার ৮৩০ জন৷ একদিনে রাজ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ২ হাজার ১৬৬ জন৷  মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৯ হাজার ৯১৭ জন৷ অতীতের সুস্থ হয়ে উঠার হার থেকে এখন বেড়ে হয়েছে ৬৫.৬২ শতাংশ৷ গতকাল ছিল ৬৪.২৯ শতাংশ৷ একদিনে রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৯ জনের৷ রবিবার এই সংখ্যাটা ছিল ৪০ জন৷ সব মিলিয়ে বাংলায় মোট মৃতের সংখ্যা  দাঁড়াল ১ হাজার ৪১১ জন৷ তবে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ৫০২ জন৷ 

রাজ্য়ে যে ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে, তাদের মধ্যে কলকাতারই ১০ জন৷ উত্তর ২৪ পরগনার ১৪ জন৷ দক্ষিণ ২৪ পরগনার ২ জন৷ হাওড়া ২ জন৷ হুগলি ৩ জন৷ পশ্চিম মেদিনীপুর ১ জন৷ এছাড়াও রয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর ১ জন৷ বীরভূম ২ জন৷ মালদা ১ জন৷ জলপাইগুড়ি ১ জন৷ দার্জিলিং ২ জন৷ 

স্বাস্থ্য় বুলেটিন জানাচ্ছে, একদিনে টেস্ট হয়েছে ১৭ হাজার ৫ টি৷ অতীতে একদিনে রাজ্য়ে এত টেস্ট কোনওদিনই  হয়নি। গতকাল এই সংখ্য়াটা ছিল ১৬ হাজার ৪৫টি৷ এই পর্যন্ত মোট টেস্টের সংখ্যা ৮ লক্ষ ২২ হাজার ১৯০টি৷ গতকাল ছিল ৮ লক্ষ ৫ হাজার ১৮৫টি৷ এই মুহূর্তে সরকারি এবং বেসরকারি মিলিয়ে রাজ্যে ৫৭টি ল্যাবরেটরিতে করোনা টেস্ট হচ্ছে৷ আরও ৩ টি ল্যাবরেটরি অপেক্ষায় রয়েছে৷ 

এদিকে এদিনই কলকাতায় নতুন একটি অত্যাধুনিক আইসিএমআর ল্যাবের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। ভার্চুয়াল মিটিংয়ে মুখ্য়মন্ত্রীও উপস্থিত ছিলেন এই  মিটিংয়ে। কলকাতা ছাড়াও আরও তিন রাজ্য়ে এই ল্যাব গড়া হয়েছে। করোনা বাদেও অন্য়ান্য ভাইরাসের পরীক্ষা করা যাবে এই ল্যাবে।