ফুচকা। নামটা শুনলেই জিভে জল চলে আসে। গ্রীষ্ম হোক বা শীত, রাস্তার মোড়ে বন্ধুদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে টক ঝাল ফুচকায় কামড় দেওয়া যেন স্বর্গসুখের চেয়ে কম কিছু নয়। তবে মুম্বইয়ের পানিপুরি বা দিল্লির গোলগাপ্পার থেকে স্বাদে ভিন্ন ফুচকা। কলকাতাতেও আবার বিভিন্ন রকমের ফুচকা পাওয়া যায়। কোথাও মিষ্টি জল দিয়ে। কোথাও আবার দই বা ঘুঘনি দিয়ে। জেনে নেওয়া যাক কলকাতায় ফুচকা সেরা কয়েকটি ঠিকানা- 

১)  বর্ধন মার্কেট (ক্যামাক স্ট্রিট)- পাও ভাজি, পকোড়া থেকে সব রকমের মুখরোচক খাবার পাবেন এখানে। এখানে ফুচকার বিশেষত্ব হল এর মশলা। মেথি, জিরে, ধনে পাতা দিয়ে যে ভাবে আলু মাখা হয় তা একবার খেলে মনে থেকে যাবে। 

২) নিউ মার্কেট- কলকাতার সবচেয়ে জমজমাটি এলাকা। এখানেও বেশ কয়েকটি ফুচকার স্টল রয়েছে। শপিং সেরে টক জল দেওয়া ফুচকা খেলে যেন আরাম পাওয়া যায়। 

৩) উল্টোডাঙা ক্রসিং (পিসি চন্দ্র জুয়েলার্সের কাছে)- মুচমুচে ফুচকা, আর তার ভিতরে মাখা আলুর গন্ধেই অর্ধেক পেট ভরে যায়। তাই ফুচকা প্রেমীরা এখান থেকেও ফুচকা চেখে দেখুন। 

৪) বিবেকানন্দ পার্ক- এখানকার ফুচকা খেলে  আর ভুলবেন না। এর বিশেষত্ব হল এর টক জল। তেঁতুল, কাঁচা আম আর গন্ধরাজ লেবু দিয়ে তৈরি হয় এর জল। পাশ দিয়ে গেলে গন্ধে ম ম করে। 

৫) ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল- অনেকগুলি দোকান রয়েছে এখানে। এর বিশেষত্ব হল আলু মাখা। আলুর সঙ্গে তেঁতুলের চাটনি ও বিশেষ মশলা মাখা হয়। তাই দেরি না করে খেয়ে আসুন। 

৬) আলিপুর (উডল্যান্ড হাই বিল্ডিং-এর কাছে)- এই  খানে ১৭  রকমের ফুচকা পাওয়া যায়। রয়েছে শিজওয়ান,চকোলেট, দই, ধোকলা, ঘুঘনি ফুচকা। মিনেরাল ওয়াটার ব্যবহার করা হয় জলের জন্য। ফুচকা প্রেমীরা অবশ্যই যান। 

ফুচকা। নামটা শুনলেই জিভে জল চলে আসে। গ্রীষ্ম হোক বা শীত, রাস্তার মোড়ে বন্ধুদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে টক ঝাল ফুচকায় কামড় দেওয়া যেন স্বর্গসুখের চেয়ে কম কিছু নয়। তবে মুম্বইয়ের পানিপুরি বা দিল্লির গোলগাপ্পার থেকে স্বাদে ভিন্ন ফুচকা। কলকাতাতেও আবার বিভিন্ন রকমের ফুচকা পাওয়া যায়। কোথাও মিষ্টি জল দিয়ে। কোথাও আবার দই বা ঘুঘনি দিয়ে। জেনে নেওয়া যাক কলকাতায় ফুচকা সেরা কয়েকটি ঠিকানা- 

১)  বর্ধন মার্কেট (ক্যামাক স্ট্রিট)- পাও ভাজি, পকোড়া থেকে সব রকমের মুখরোচক খাবার পাবেন এখানে। এখানে ফুচকার বিশেষত্ব হল এর মশলা। মেথি, জিরে, ধনে পাতা দিয়ে যে ভাবে আলু মাখা হয় তা একবার খেলে মনে থেকে যাবে। 

২) নিউ মার্কেট- কলকাতার সবচেয়ে জমজমাটি এলাকা। এখানেও বেশ কয়েকটি ফুচকার স্টল রয়েছে। শপিং সেরে টক জল দেওয়া ফুচকা খেলে যেন আরাম পাওয়া যায়। 

৩) উল্টোডাঙা ক্রসিং (পিসি চন্দ্র জুয়েলার্সের কাছে)- মুচমুচে ফুচকা, আর তার ভিতরে মাখা আলুর গন্ধেই অর্ধেক পেট ভরে যায়। তাই ফুচকা প্রেমীরা এখান থেকেও ফুচকা চেখে দেখুন। 

৪) বিবেকানন্দ পার্ক- এখানকার ফুচকা খেলে  আর ভুলবেন না। এর বিশেষত্ব হল এর টক জল। তেঁতুল, কাঁচা আম আর গন্ধরাজ লেবু দিয়ে তৈরি হয় এর জল। পাশ দিয়ে গেলে গন্ধে ম ম করে। 

৫) ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল- অনেকগুলি দোকান রয়েছে এখানে। এর বিশেষত্ব হল আলু মাখা। আলুর সঙ্গে তেঁতুলের চাটনি ও বিশেষ মশলা মাখা হয়। তাই দেরি না করে খেয়ে আসুন। 

৬) আলিপুর (উডল্যান্ড হাই বিল্ডিং-এর কাছে)- এই  খানে ১৭  রকমের ফুচকা পাওয়া যায়। রয়েছে শিজওয়ান,চকোলেট, দই, ধোকলা, ঘুঘনি ফুচকা। মিনেরাল ওয়াটার ব্যবহার করা হয় জলের জন্য। ফুচকা প্রেমীরা অবশ্যই যান।