করোনা আতঙ্ক এখন ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। মুহূর্তের মধ্যে একজনের থেকে আরেকজনের শরীরে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ইতিমধ্যেই করোনা আতঙ্কে জেরবার বিশ্ববাসী । মানুষের সংস্পর্শেই সংক্রমিত হচ্ছে এই করোনা ভাইরাস । মানুষের নিঃশ্বাস প্রশ্বাসের সঙ্গেই ছড়িয়ে যাচ্ছে এই রোগের জীবানু। যত দিন যাচ্ছে ততই যেন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ভাইরাসে আক্রান্ত সংখ্যা।  সম্প্রতি  এক গবেষণা প্রকাশ্যে এসেছে। জানা যাচ্ছে, একটানা কথা বলার আগে সাবধান হোন। বদ্ধ ঘরের মধ্যে কথা বললেও সেখান থেকে ছড়াতে পারে করোনা ভাইরাস।

আরও পড়ুন-ইন্টারনেটের টাওয়ার পেতে গাছের মগডালে যুবক, ডালে ঝুলে থেকেই চলল অনলাইন ক্লাস...

একটানা কথা বললে সেখানে তৈরি হয় মাইক্রো ড্রপলেট। আর সেখান থেকেও ছড়িয়ে পড়তে পারে করোনা ভাইরাস। গবেষকরা জানিয়েছেন, বদ্ধ ঘরের মধ্যে কেউ যদি ১০ মিনিট একটানা কথা বললে তবে সেই মাইক্রো ড্রপলেট থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস। সমীক্ষায় দেখা গেছে,  কোনও ব্যক্তি যদি ২৫ সেকেন্ড ধরে টানা স্টে হেলডি কথাটি জোরে জোরে বলে তাহলে ওই ঘরের মধ্যে প্রচুর মাইক্রো ড্রপলেট তৈরি হচ্ছে।  আর সেগুলি বাতাসের মধ্যে থাকছে গড়ে অন্তত ১২ মিনিট।

আরও পড়ুন-'ওয়াটার থেরাপি'-তে কমবে শরীরের বাড়তি ওজন, ঘরে বসেই ট্রাই করুন...

গবেষণা থেকে আরও জানা গেছে, যদি কোনও ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়,  এবং তিনি যদি ১০ মিনিট একনাগাড়ে কথা বলেন তাহলে তার লালাতে থাকা করোনা ভাইরাস  বাতাসে ছড়িয়ে যেতে পারে। এছাড়া যদি বেশি জোরে কথা বলা হয় তাহলে  ড্রপলেটে  হাজারেরও বেশি ভাইরাস থাকতে পারে। এবং বদ্ধ ঘরে সেই ভাইরাস ৮ মিনিটেরও বেশি সময় বেঁচে থাকতে পারে। তাই বাড়িতেও মাস্ক পরাটা ভীষণ জরুরি। তাহলে কথা বলার সময় ড্রপলেট বাতাসে ঘুরে বেড়াতে পারবে না।