মরশুম বদলের এই সময় ত্বক ধীরে ধীরে হয়ে আসে নিষ্প্রাণ ও রুক্ষ। আর মহামারীর আবহে একটানা এতদিন পার্লার বন্ধ থাকার কারণে অনেকেই ত্বকের যত্ন নিয়ে উঠতে পারেননি। অথচ করোনা আতঙ্ককে একটু একটু করে দূরে সরিয়ে দরজায় কড়া নাড়ছে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব। আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকটা দিন। তাই এখন থেকেই বাড়তেই লেগে যায় রূপচর্চায়। বিশেষ করে যারা শুষ্ক ত্বকের সমস্যায় ভোগেন। এই সময় থেকেই ত্বকের যত্ন না নিলে ত্বক উজ্জ্বলতা হারিয়ে ফিকে হয়ে আসতে পারে ত্বকের জৌলুস। তাই এই সময় প্রয়োজন ত্বকের বিশেষ যত্নের।

বাজার চলতি প্রচুর কসমেটিক্স প্রোডাক্ট রয়েছে যা ত্বকের এই সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এই প্রোডাক্টগুলিতে রয়েছে ক্যামিক্যাল রিয়াক্সনও।  পুজোতে ত্বকের বিশেষ যত্ন নিতে বাড়িতেই বানিয়ে নিন এই সেরাম। যা কাজ করবে ম্যাজিকের মত। একেবারে ঘরোয়া উপায় তৈরি এই সেরাম ব্যবহার করলে আপনার ত্বক থাকবে মসৃণ ও উজ্জ্বল। যাদের ত্বক শুষ্ক বা ড্রাই স্কিনের সমস্যা রয়েছে, তারা অবশ্যই ব্যবহার করে দেখতে পারেন এই ঘরোয়া উপকরণ।

এই ম্যাজিক সেরাম বানাতে লাগবে- ৩ টেবল চামচ পিওর গ্লিসারিন, ২ টেবল চামচ পাতি লেবুর রস, ২ টো ভিটামিন ই ক্যাপসুল, ১ চা চামচ গোলাপ জল

যে ভাবে বানাবেন-  প্রথমে একটি পাত্রে এই সমস্ত উপকরণগুলি একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে এয়ার টাইট কন্টেনারে রেখে দিন। প্রতিদিন রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে ভালো করে মুখে ম্যাসাজ করে নিয়ে, পরদিন সকালে উঠে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই সেরাম আপনি ১-২ সপ্তাহ অবধি ফ্রিজে রেখে ব্যবহার করতে পারবেন। মেপআপ তোলার পর এই সেরাম ব্যবহার করতে পারেন, তাতে ত্বক খুব রিফ্রেস থাকে। পরপর টানা ২ সপ্তাহ ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন ত্বকে কতটা পরিবর্তন এসেছে।