চা-এর নেশা নেই এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কঠিন। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না যে, চা-পাতা ত্বকের অনেক সমস্যা দূর করতেই বিশেষভাবে কাজ করে। ত্বকের অনেক রকমের সমস্যাকে দূরে রেখে ত্বককে স্বাস্থ্যজ্জ্বল ও দীপ্তিময় করে তুলতে বিশেষ ভুমিকা পালন করে এই চা-পাতা। দেখে নিন ত্বকের কীভাবে কাজে লাগতে পারে চা-পাতা।

১) চোখের যত্নে- চোখের চারপাশের ফোলাভাব দূর করতে পারে চা-পাতা। এর জন্য চা খাওয়ার পর টি-ব্যাগ ফেলে না দিয়ে সেটি ঈষদ উষ্ণ জলে ভিজিয়ো রাখুন কিছুক্ষণ। এরপর তা থেকে অতিরিক্ত জল নিংড়ে নিয়ে চোখের ওপর রাখুন। এতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট চোখের ফোলাভাব দূর করতে সাহায্য করে।

২) ব্রণ দূর করতে- ব্রণ দূর করতেও বিশেষ ভুমিকা পালন করে চায়ের পাতা। এরজন্য চায়ের লিকারে কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিয়ে তা তুলোতে করে নিয়ে ব্রণের উপর লাগান। এইভাবে নিয়ম করে করতে পারলে আপনি খুব সহজেই ব্রণর সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। 

৩) টোনার হিসাবে- চায়ের লিকার টোনার হিসাবে খুব ভাল কাজ করে। এর পদ্ধতিটি খুবই সহজ। চায়ের লিকার ঠান্ডা করে নিয়ে তা মুখে লাগালেই একেবারে টোনারের মতোই এফেক্ট পাওয়া যাবে।

৪) ফেসপ্যাক হিসাবে- এরজন্য খানিকটা গ্রিন টি-র পাতায় দু-চামচ মধু, আধ চামচ দই এবং সামান্য পরিমাণ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এই ফেসপ্যাকটি নিয়মিতব্যবহার করলে তা ত্বককে করে তুলবে উজ্জ্বল। 

৫) স্ক্রাব হিসেবে- চা তৈরির পর চায়ের পাতা মুখে স্ক্রাব হিসাবে ব্যবহার করুন। খানিকক্ষণ স্ক্রাবিং-এর পর মুখে ময়শ্চারাইজার লাগান। চায়ে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বককে উজ্জ্বল,নরম ও মসৃণ করতে সাহায্য করে।

৬) ত্বকের দাগ-ছোপ দূর করতে- চায়ের পাতা ত্বকের কালো ভাব দূর করতে সাহায্য করে। এর জন্য চায়ের লিকারে একটি কাপর ডুবিয়ে রেখে সেটি ঠান্ডা হলে মুখে লাগাতে হবে। এতে ত্বকের কালো দাগ-ছোপ দূর হয় খুব সহজেই।