টেলিকম দুনিয়ার পর এবার ডিটিএইচ দুনিয়ায় নতুন চমক আনতে চলেছে জিও। ভারতীয় ডিটিএইচ পরিষেবার আসতে চলেছে বহু প্রতীক্ষিত রিলায়েন্স জিও ইনফোকম সংস্থার জিও গিগা ফাইবারের পরিষেবা। প্রায় এক বছর আগেই ডিটিএইচ পরিষেবায় গিগাফাইবার নিয়ে আসার কথা জানিয়েছিল জিও। অবশেষে ১২ অগাষ্ট সম্ভবত হতে চলেছে সেই অপেক্ষার অবসান।

সংস্থার কর্ণধার মুকেশ আম্বানী এই বিষয়ে জানিয়েছেন, এই ব্রডব্যান্ড পরিষেবা দেশের ১১০০টির বেশি শহরে পাওয়া যাবে। জিও গিগাফাইবার এর সাহায্যে খুব অল্প খরচেই বাড়ির টিভির কানেকশন সহ পাওয়া যাবে মোবাইলের দ্রুততম ইন্টারনেট পরিষেবাও। জিও-ই দেশে প্রথম ফাইবারের ব্রডব্যান্ড সংযোগ নিয়ে আসছে বলে দাবি করেছেন তিনি। এ বিষয়ে মুকেশ আম্বানী আরও জানিয়েছেন, শুধুমাত্র মোবাইল এবং ডিটিএইচ এর কানেকশন-ই নয়, এর সঙ্গে থাকবে আইপিটিভি এবং ল্যান্ডলাইন কানেকশনের সুবিধাও। 

সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জিও-র আগামী জেনারেল মিটিং-এর দিনেই জিও গিগা ফাইবারের দাম ঘোষণা করবে সংস্থা। জিও অ্যাপ এবং অনলাইনের মাধ্যমে আগামী ১২ অগাষ্ট থেকে এই জিও গিগা ফাইবারের জন্য রেজিস্ট্রেশনও করা যাবে। ইতিমধ্যেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে জিও গিগাফাইবার-এর বিটা টেস্টিং এর কাজও করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, গিগা ফাইবারের এই নতুন কানেকশনের সঙ্গে একটি অপটিক্যাল নেটওয়ার্ক টার্মিনাল পাবেন গ্রাহকরা। যার সাহায্যে এই একটি ডিভাইসের মাধ্যমেই ডিটিএইচ, ব্রডব্যান্ড, ভয়েস কলের সুবিধা পাবে গ্রাহক।

বিটা টেস্টিং এর শুরুতে গিগা ফাইবারের কানেকশন এর জন্য় ধার্য করা হয়েছিল ৪৫০০ টাকা। তবে পরবর্তীকালে সেই দাম কমিয়ে ২৫০০ টাকায় কম দামের ওএনটি ডিভাইস-সহ প্ল্যান এর কথা জানিয়েছিল সংস্থা। সম্প্রতি মাত্র ৬০০ টাকায় গিগা ফাইবারের জন্য ট্রিপল প্ল্যান এনেছে জিও । এই প্ল্যানে গ্রাহকরা মাসে মাত্র ৬০০ টাকায় ব্যবহার করতে পারবেন এই পরিষেবা।