এই বছরের শ্রীশ্রীকৃষ্ণজন্মাষ্টমী ব্রত অনুষ্ঠিত হবে ২৩ অগাস্ট শুক্রবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬। পুরাণ মতে দ্বাপর যুগের এই তিথিতেই মানবরূপে মর্তে আবির্ভাব হয়েছিলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ। এই উৎসবগুলি কৃষ্ণাষ্টমী, গোকুলাষ্টমী, অষ্টমী রোহিণী, শ্রীকৃষ্ণজয়ন্তী ইত্যাদি নামেও পরিচিত।
হিন্দু পঞ্জিকা মতে, সৌর ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে যখন রোহিণী নক্ষত্রের প্রাধান্য হয়, তখন জন্মাষ্টমী পালিত হয়। উৎসবটি গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসারে, প্রতি বছর আগস্ট মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে কোনও এক সময়ে পড়ে। মনে করা হয়ল বিষ্ণুর অষ্টম অবতার শ্রীকৃষ্ণ। কৃষ্ণের জীবনের রাসলীলা মথুরা, বৃন্দাবন, মণিপুর ইত্যাদি বিভিন্ন স্থানে এই উৎসবের সঙ্গে করা হয়।

আরও পড়ুন- জন্মাষ্টমী স্পেশাল রেসিপি তালের পায়েস
হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিশেষত বৈষ্ণবদের কাছে জন্মাষ্টমী একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎসব। এই উৎসব নানা ভাবে উদযাপন করা হয়। যেমন - ভগবত পুরাণ অনুযায়ী নৃত্য, নাটক যাকে বলা হয় রাসলীলা বা কৃষ্ণ লীলা, মধ্যরাত্রি তে শ্রীকৃষ্ণের জন্মের মুহূর্তে ধর্মীয় গীত গাওয়া, উপবাস, দহি হান্ডি প্রভৃতি। দহি হান্ডি উৎসবে ছোটরা মিলে উঁচু কোনও জায়গায় বেঁধে রাখা মাখনের হাড়ি ভাঙতে চেষ্টা করে। এই রীতির মধ্যে দিয়েই জন্মাষ্টমী ব্রত অনুষ্ঠিত করা 
বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত মতে অষ্টমী তিথি রয়েছে ৬ ভাদ্র, ১৪২৬, শুক্রবার এবং ইংরাজির তারিখ ২৩ অগাস্ট, ২০১৯।
জন্মষ্টমীর সময়: ৬ ভাদ্র ইংরাজির ২৩ অগাস্ট, শুক্রবার সকাল ৮টা ৯ মিনিট থেকে ৭ ভাদ্র, শনিবার ইংরাজির ২৪ অগাস্ট সকাল ৮টা ৩২ মিনিট অবধি।
শ্রীশ্রীকৃষ্ণজন্মাষ্টমীব্রতম: ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ইংরাজির ২৪ অগাস্ট শনিবার রাত্রি ১১টার ১৫ মিনিটের পরে রাত্রি ১২টা ০৩ মিনিটের মধ্যে শ্রীশ্রীকৃষ্ণদেবাবির্ভাব।
গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা মতে:অষ্টমী তিথি ৪ ভাদ্র ১৪২৬, বৃহস্পতিবার ইংরেজি ২২ অগাস্ট, ২০১৯, রাত্রি ৩টে ২৭ মিনিট থেকে ৫ ভাদ্র ১৪২৬, শুক্রবার ইংরেজি ২৩ অগাস্ট ২০১৯ রাত্রি ৩টে ৩০ মিনিট পর্যন্ত।
শ্রীশ্রীকৃষ্ণজন্মাষ্টমীব্রতম: ৫ ভাদ্র ১৪২৬, শুক্রবার ইংরেজি ২৩ অগস্ট, ২০১৯, রাত্রি ১১টা ৩৯ মিনিটের পর থেকে রাত্রি ১২টা ২৭ মিনিটের মধ্যে শ্রীশ্রীকৃষ্ণদেবাবির্ভাব।