স্কুবা ডাইভিং করতে অনেকেই ভালোবাসেন। সমুদ্রের অতল গভীরে গিয়ে সামুদ্রিক প্রবাল,রঙিন মাছ নিজের চোখে দেখে যেনও স্বর্গদর্শন হয়। কিন্তু ধরুন হঠাৎ যদি কেউ নিজের ইচ্ছে না থাকলেও  তলিয়ে যান সমুদ্রের অতল গভীরে, তখন তা অবশ্যই ভয়াবহ হয়।আর ঠিক তেমনই একটা জায়গা এই মুহূর্তে অ্যাটলান্টিক মহাসাগরের এক বিশেষ অঞ্চলে রয়েছে, যার নাম বারমুডা ট্রাই-অ্যাঙ্গেল। 

আরও পড়ুন, রহস্যে ভরা 'রুপকুণ্ড', এই কঙ্কাল লেক আকৃষ্ট করবে আপনাকেও

  পৃথিবীর মধ্যে এই  জায়গাটি কে ,সমুদ্রের একটি  অস্বাভাবিক স্থান হিসেবে ধরা হয়। জাহাজ হোক কিংবা এরোপ্লেন ,সবাই বোঝার আগেই যেন জলের তলায় হারিয়ে যায়। একে প্যাসিফিক বারমুডা ট্রাই অ্যাঙ্গেল ও বলা হয়। 'দ্য বারমুডা ট্রাই-অ্যাঙ্গেল' নামে একটি হলিউড মুভিও আপনিও দেখতে পাবেন,কিন্তু তারপরও যেনও আঁশ মেটেনা।তাই রহস্যটা থেকেই যায়।  

আরও পড়ুন, পাকিস্তানের কাটাসরাজ আজও বিস্ময়, মহাদেবের চোখের জলে তৈরি পুকুর রয়েছে এই শিবমন্দিরে
    
তবে সবার বিশ্বাস এখানে প্যারা-নরমাল কোন কিছুর অস্তিত্ব থাকার কারনেই এমন ঘটনা ঘটে।  বিজ্ঞান কিন্তু  আজও বারমুডা  ট্রাই-অ্যাঙ্গেল এর সঠিক কোনও ব্যাখ্যা দিতে পারেনি।তাই এ যেনও অমোঘ টান ,উপেক্ষা করার ইচ্ছে থাকলেও উপায় হয়না।অজানাই থেকে যায় বছরের পর বছর।