পর্ণ ভিডিওর কারণে অপরাধ বাড়ছে এমনটা হামেশাই শোনা যায়। আগেও এই তথ্য বহুবার উঠে এসেছে। এমনকি অনেকেই আছেন যারা এই পর্ণ ভিডিওর প্রতি আসক্ত। সম্প্রতি একটি তথ্যতে এমনটা দেখা গিয়েছে লকডাউনে অনেকেরেই এই ধরনের ভিডিওর প্রতি আসক্ত হয়ে পড়েছেন। বারবার পর্ণ ভিডিওর কারণে হওয়া অপরাধের কথা উঠে আসছে সামনে। আর সেই অপরাধ কমাতেই এবার এক নয়া উদ্যোগ নিতে চলেছে জনপ্রিয় পর্ণ সংস্থা পর্ণ হাব।

বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় এই পর্ণ সংস্থার নামে বেশ কিছু অভিযোগ উঠে আসছিল। নিউইয়র্ক টাইমসের একটি প্রতিবেদনে প্রকাশের মাধ্যমে উঠে আসে এই সংস্থার জেরেই নানানরকম ঘটনা ঘটছে। এর পরেই এই পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করে সাইটটি। সংবাদ সংস্থার ওই প্রতিবেদন অনুযায়ি ওয়েবসাইটটিতে ধর্ষণের ভিডিও, অ-সংবেদনশীল ভিডিও আপলোড করা হচ্ছে। আর সেই নিয়েই অভিযোগ তোলে সংবাদ সংস্থাটি। 

মঙ্গলবার পর্নহাব ঘোষণা করে, কেবল চিহ্নিত ব্যবহারকারীরাই ওয়েবসাইটে ভিডিও আপলোড করতে পারবে। নিউইয়র্ক টাইমসের একটি প্রতিবেদনে হাইলাইট করার পরে এই পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করে তারা। আগে যেখানে যে কেও চাইলেই ভিডিও আপলোড করতে পারত এখন সেখানে কেবল ভেরিফাইড ইউজার্স বা চিহ্নিত ব্যবহারকারীরাই ভিডিও আপলোড করতে পারবে।