আলসার মুখেও হয়। মুখের ভিতেরে একধরনের যন্ত্রণাদায়ক ঘা হয়, যার ফলে খাওয়া দাওয়া করতে বা কথা বলতেও প্রবল সমস্যার মুখে পড়তে হয়। একেই মাউথ আলসার বলে। কোষ্ঠ্যকাঠিন্য, হরমোনাল সমস্যা এই সবের ফলেই মুখের ভিতর এই যন্ত্রণাদায়র আলসার হয়। 

চিকিৎসকরা বলছেন ভিটামিন সি ও ভিটামিন বি-এর অভাবেও এই রোগ হতে পারে। কিন্তু এই রোগ এতটাই যন্ত্রণাদায়ক যে এর থেকে রেহাই পাওয়া জরুরি হয়ে পড়ে। তা হলে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে এই রোগের হাত থেকে রেহাই পেতে পারেন। 

১) মুখে যেখান আলসার হয়েছে সেখানে দাঁতের খোঁচা লেগে আরও অবস্থা খারাপ হয়। মুখের এই ক্ষত অংশে কয়েক ফোঁটা মধু লাগান। 

২) যেখানে আলসার হয়েছে সেখানে কিছুক্ষণ বিশুদ্ধ নারকেল তেলও লাগান। এতেও উপশম পাবেন। 

৩) জলের সঙ্গে একটু ভিনিগার মিশিয়ে নিন। এবার সেই ভিনিগার দিয়ে দিনে দুবার কুলকুচি করুন। এতেও শীঘ্রই আরাম পাবেন। 

৪) শুধু স্বাদ বাড়াতেই নয়। নুনের হরেক রকমের গুণ। নুন জল দিয়ে কুলকুচি করলে দাঁত ভালো থাকে। এই আলসার কমাতেও একই টোটকা কাজে লাগাতে পারেন। 

৫) টুথপেস্টও তাড়াতাড়ি ইনফেকশন সারিয়ে ফেলতে পারে। তাই টুথপেস্ট ব্যবহার করতে পারেন। 

৬) কমলালেবুর রসে ভিটামিন সি থাকে। ভিটামিন সি-র অভাবে মাউথ আলসার হয়। তাই মাউথ আলসার হলে কমলালেবুর রস লাগাতে পারেন। 

৭) রসুনের রস লাগিয়ে রাখুন। বেশ কিছুক্ষণ রাখার পরে ধুয়ে ফেলুন।