অধিকাংশেরই এমন অনেক পছন্দের জামা রয়েছে যা দাগের কারণে বর্তমানে বাতিল। কিন্তু এই জামার দাগই যদি কয়েকটি ঘরোয়া টিপসের মাধ্যমে তুলে দেওয়া যায়, তবে তা আবারও নতুন হয়ে ওঠে। ফলে জামা বাতিল করার আগে এবার দাগ তুলেই দেখে নিন।

মাথায় রাখুন কয়েকটি ঘরোয়া টিপস।

আরও পড়ুনঃ ফোলা পেটের সমস্যা! নজর না এড়িয়ে জানুন সমস্যার মূল কারণ

১) পেনের কালিরঃ পেনের কালির দাগ লাগাটা নতুন কোনও বিষয় নয়। তাই এক্ষেত্রে প্রথমেই দাগের উপর ২-৩ ফোঁটা হ্যান্ড স্যানাটাইজার লাগিয়ে নিন। একটা পাত্রে বেকিং পাউডার ও জল মিশিয়ে তা টুথব্রাশ দিয়ে হাল্কা করে লাগিয়ে দিন দাগের ওপর। এরপর ১৫ মিনিট রেখে দিন। তারপর গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

২) সসঃ সসের দাগ তোলার সহজ উপায় হল ভিনিগারের ব্যাবহার। দাগের উপর এক ছিপি সাদা ভিনিগার ঢালুন। কিছুক্ষণ পরে দাগের অংশটা ঘষে পরে সাবান দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন।

৩) রংয়ের দাগঃ অ্যালকোহল এবং হ্যান্ড স্যানাটাইজার দিয়ে রংয়ের দাগ নিমিশেই তুলে ফেলা যায়। তবে এক্ষেত্রে বেশি দেড়ি করলে চববে না। কারণ রং পুরোনো হয়ে গেলে বা শুকিয়ে গেলে তা তোলা বেশ কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

৪) রক্তঃ নুন দিয়ে রক্তের দাগ সহজেই তুলে ফেলা যায়। রক্তের দাগের ওপর নুন দিয়ে হালকা করে ঘষে নিলে তা উঠে যায়।

৫) চুইনগামঃ চুইনগামের দাগ মেটাতে বরফের টুকরো নিয়ে বাবুলগামের উপর ভাল করে ঘষুন। ১০ মিনিট পর শক্ত কিছু দিয়ে জায়গাটা ঘষে নিন। এতেও যদি না হয় তবে এই জায়গায় একটু ভিনিগার ছড়িয়ে দিন। 

৬) কাদার দাগঃ   কাদার দাগ তোলার জন্য ব্লিচিং পাউডার মোক্ষম দাওয়াই। তবে খুব সাবধান, এতে জামার রং নষ্ট হতে পারে। একবাটি জলে ১ চামচ ব্লিচিং পাউডার গুলে নিয়ে তা দাগের ওপর লাগিয়ে, শুকিয়ে, ধুয়ে নিন। 

৭) আইসক্রিমঃ  লেবুর রস দিয়ে অনেক দাগই তুলে দেওয়া যায়। আইসক্রিমের দাগ লাগলে, সেই অংশে লেবুর রস লাগিয়ে রাখলে দাগ উঠে যাবে।