সুন্দর করে চুলে শ্যাম্পু করে বেরনোর পরে তা বৃষ্টিতে ভিজে গেলে কেমন লাগে তা অনেকেরই জানা। তবে শুধু ক্ষণিকের সমস্যাই নয়। বৃষ্টির জলে চুল ভিজলে অনেক সমস্যা দীর্ঘ সম.এর জন্য়ই হতে পারে। ফলে চুলের বারোটা বাজতে পারে সহজেই। তাই বর্ষা কালে বা বৃষ্টিতে চুল ভিজলে একটু বেশিই খেয়াল রাখতে হয়। 

আরও পড়ুনঃ অল্প বয়সেই পাকছে চুল! ১০টি টিপসে কমিয়ে ফেলুন চুল পাকার সমস্যা

জেনে নেওয়া যাক ঠিক কী কী করলে বৃষ্টিতে চুল ভিজে গেলে কী কী করা উচিত- 

১) বৃষ্টির জলে প্রটুর পরিমণে অ্য়াসিড থাকে যা খথুবই খারাপ চুলের জন্য। এই জলে নোংরাও থাকে প্রচুর। তাই বৃষ্টির জল চুলের গোড়ায় বসতে দেবেন না। বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা থকলে অবশ্যই সঙ্গে ছাতা বা রোনকোট রাখুন। বৃষ্টির জলে  চুল ভিজে গেলে অবশ্যই বাড়ি এসে শ্যাম্পু করে নিন। 

২) বৃষ্টির দিনে চুলের গোড়া নরম ও তেলতেলে থাকে। কিন্তু চুলের ডগা খুবই রুক্ষ হয়ে যায়। ফলে সপ্তাহে অন্তত তিন বার ভালো করে শ্যাম্পু করুন। অবশ্যই কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন। শ্যাম্পু করার সময়ে অবশ্যই ভালো করে গোড়া মাসাজ করে নেবেন যাতে কোনও ময়লা না থাকে। 

৩) ভালো পরিষ্কার চিরুনি ব্যবহার করবেন। অবশ্যই চিরুনির দাঁড়া যেন মোটা হয়। ভালো করে জট ছাড়িয়ে রাখুন। চুলে কোনও ভাবেই জট পড়তে দেবেন না। 

৪) চুলে কন্ডিশনার লাগানোর সময়ে  তা যেন গোড়ায় কোনও ভাবেই লেগে না যায়। 

৫) চুল বৃষ্টিতে ভিজে গেলে অবশ্যই তা ভালো করে শুকিয়ে নিন। কখনওই চুল বেঁধে রাখবেন না। এতে চুল তেলতেলে থাকবে  ও নোংরা জমে যাবে।