আবহাওয়ার চেয়েও দ্রুত বদলে  যেতে পারে প্রেমের সমীকরণ। আজ যার প্রেমে কবিতা লিখছেন, কাল হয়তো তাঁর সঙ্গে নামমাত্র যোগাযোগটুকু থাকবে। কিন্তু সমস্তটাই মেনে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার নামই জীবন। পরিচিতি থেকে প্রেম হবে। প্রেম থেকে আবার বিচ্ছেদ। কিন্তু অনেকেই এই বিচ্ছেদ মেনে নিতে পারেন না। ভেঙে পড়েন। ফলস্বরূপ আবার পুরনো সঙ্গীর কাছে ফিরে যাওয়াই তাঁর জীবনের মূল উদ্দেশ্য হয়ে দাঁড়ায়। 

এমন অনেকের ক্ষেত্রেই হয়ে থাকে। এক সময়ে হয়তো সেই প্রাক্তনই আপনার সঙ্গে সম্পর্কে দাঁড়ি টেনেছিলেন। কিন্তু এখন তিনি ফিরতে চাচ্ছেন। আপনি বিরক্ত হচ্ছেন, অথচ বুঝতে পারছেন না সেই পরিস্থিতি কীভাবে সামাল দেবেন। ততদিনে নতুন সম্পর্কে চলে গেলে সমস্যা আরও একটু জটিল হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যায়। কিন্তু পরিস্থিতিকে এড়িয়ে না গিয়ে তাকে সামাল দিন। কীভাবে জেনে নিন- 

১)  প্রাক্তনকে আপনি বন্ধু ভাবেন। কিন্তু সে পুরনো প্রেমের সমীকরণ ফিরে পেতে চায়। এই পরিস্থিতি বেষ জটিল। বুঝে নিন, সে শুধুই আপনাকে পাওয়ার চেষ্টা করছে। তাই খামোখা আপনিও বন্ধুত্ব রাখার চেষ্টা করবেন না। এতে নতুন সম্পর্কে প্রভাব পড়বে। 

আরও পড়ুনঃ সঙ্গীর সঙ্গে লিভ-ইন করছেন! ভবিষ্যতেও একসঙ্গে থাকবেন কি না বুঝে নিন

২) নিজের কাছে সৎ হওয়াটা প্রয়োজন। প্রাক্তনের প্রতি কি আজও একই রকম অনুভূতি রয়ে গিয়েছে? নাকি সে কেবলই আপনার জীবনে একজন পরিচিত ব্যক্তি! নাকি তাকে বন্ধু হিসেবে গ্রহণ করতে আপনি প্রস্তুত? নিজেকে প্রশ্ন করুন। আপনার যেটা মনে হয় সেটাই  পরিষ্কার করে বলে দিনে। তাঁকে কতটা জায়গা দেবেন তা আপনার হাতেই। 

৩) প্রাক্তনের সঙ্গে বন্ধুত্ব রাখলেও একসঙ্গে অতীতে যেখানে যেতেন সেখানে তার সঙ্গে কখনওই যাবেন না। এতে পুরনো কথা উঠবেই। যতটা কম সম্ভব পুরনো স্মৃতিচারণ কম করুন। 

৪)  প্রাক্তন কী বলতে চাইছে, আপনার থেকে কী চাইছে, তা প্রথম দিনেই বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করুন। বিরক্ত বোধ করলে তাকে এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। 

৫) যদি বিরক্ত করার সীমা ছাড়িয়ে যায় প্রাক্তন সঙ্গী, তার সঙ্গে সাধারণ যোগাযোগও বন্ধ করুন। সোশ্যাল মিডিয়া ও ফোন থেকে ব্লক করে দিন।