বাঙালির ভ্রমণ তালিকাতে পুরী, দিঘা, দার্জিলিং থাকা চাই। ফলে এই জায়গাগুলোকে নিয়ে আলাদা করে কোনও তথ্য দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। অধিকাংশরই ঘোরা হিমালয়ের কোলে থাকা দার্জিলিং শহর। কিন্তু ক্রমেই আবহাওয়া পরিবর্তন হওয়ার ফলে শীতের আমেজে মন কাড়ছিল না দার্জিলিং। এগারো বছর আগে সেখানে বরফ পড়েছিল। তারপর থেকে দেখা মেলেনি বরফের। তবে সেই তকমা ঘুচেছিল ২০১৯-এর জানুয়ারি মাসে। দশ বছর পর বরফ পড়েছিল দার্জিলিং-এ। 

চলতি বছরের মরশুম বলছে মাথার ওপর ঘনিয়ে আসছে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। ফলে আবারও বরফ পড়তে পারে দার্জিলিং-এ। তাই তড়িঘড়ি ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা থাকলে, বেছে নিন দার্জিলিং শহরকে। 

আরও পড়ুনঃ অফবিট সিকিম, ঘোরার তালিকাতে এবার রাখুন আরিতার

কী দেখবেনঃ জানুয়ারি মাসে শীত উপভোগ করতে পৌঁছে যান দার্জিলিং। সেখানেই দেখা মিলবে বরফের। ইতিমধ্যেই দার্জিলিং-এর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমেছিল ৪ ডিগ্রিতে। ট্রয় ট্রেন চাপা, টাইগার হিল থেকে শুরু করে সাতটি পয়েন্ট দেখে নেওয়া যাবে মনোরম পরিবেশে। সঙ্গে ঘুরে আসতে পারেন নামচি-রাবাংলা থেকেও। 

কোথায় থাকবেনঃ দার্জিলিং-এ বর্তমানে হোটেলের সংখ্যা বেড়েছে বিস্তর। তাই আগে থেকে ম্যালের কাছে হোটেল বুক করে বেড়িয়ে পড়তে পারেন অনায়াসে। হোটেল মিলবে ১০০০ টাকা থেকেই। 

কীভাবে যাবেনঃ বিমানপথে বাগডোগরা ও রেলপথে শিলিগুড়ি হয়ে পৌঁছে যাওয়া যায়। সেখান থেকে মিলবে গাড়ি। ঘন্টা চারেকের মধ্যে সোজা পৌঁছে যাওয়া দার্জিলিং। পুরো গাড়ি বুক করে যাওয়া যেতে পারে, কিংবা শেয়ারেও যাওয়া যেতে পারে। 

খরচ কতঃ দার্জিলিং-এ সারা বছরই একই খরচ। যদিও গ্রীষ্মে চাহিদা খানিকটা বেড়ে যায়। মাথা পিছু ৮ থেকে ১০ হাজার রাখলেই ভালো করে ঘোরা যাবে দার্জিলিং।