গরমে শরীর ক্লান্ত লাগার প্রধান কারণ হল হিট স্ট্রেস। গরমে এই হিট স্ট্রেসের সমস্যায় কম বেশি সকলেই ভুগে থাকি। কিন্তু জানেন কি এই হিট স্ট্রেস কোন কোন কারণে হতে পারে। আমাদের শরীরের তাপমাত্রা ৩৭ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত থাকলে আমরা সুস্থ থাকি। তবে এর অধিক তাপমাত্রা হলেই আমরা ঘামতে শুরু করি। আর শরীর ঘামের মাধ্যমেই নিজেকে সুস্থ রাখে। তবে অতিরিক্ত ঘাম হলে শরীর ডিহাইড্রেটেড হয়ে পড়ে। আর তখনই হিট স্ট্রেসের সম্ভাবনা বাড়ে।

আরও পড়ুন-জ্বর-সর্দি-শ্বাসকষ্টই নয়, ত্বকের এই সমস্যাও হতে পারে কোভিডের লক্ষণ, চিনে নিন উপসর্গগুলি...

 

 

গরম পড়তে না পড়তেই নাজেহাল প্রত্যেকে। তাপমাত্রার পারদ  যেন এখনই তুঙ্গে। রোদের দিকে তাকালেই যেন শরীরটা নিমেষে ঝিমিয়ে যাচ্ছে। একদিকে তাপমাত্রার দাবদাহ, আর অন্যদিকে শরীরে অস্বস্তি। গরমে যেন ক্লান্তি আরও চেপে বসছে শরীরে। একটু কাজ করলেই মনে হচ্ছে আর যেন পারছি না। একটু বসলে ভাল হয়। গরম পড়তে না পড়তে এই  সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। কিন্তু জানেন কি কোন কোন কারণে ক্লান্তি গ্রাস করছে শরীরকে। 

 

 

অতিরিক্ত গরমে থাকলে বা বদ্ধ ঘরের মধ্যে বসে সারাদিন কাজ করলে হিট স্ট্রেস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। বিশেষত যারা বাড়ি থেকে ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন এবং একটানা ৯ থেকে ১০ ঘন্টা বসে একজায়গায় কাজ করছেন তাদের মধ্যে এই হিট স্ট্রেস হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থাকে। তাই এমন জায়গায় থাকুন যেখানে ভেন্টিলেশন হয়। প্রচন্ড গরমের দিনে সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ৩ টের মধ্যে বাড়ির বাইরে না বেরোনোও ভাল। কারণ এই সময় সূর্য মাথার উপরে থাকে। এই সময়টাতেও সূর্যের তাপে হিট স্ট্রেস হতে পারে। গরম কালে যতটা পারবেন ভিড় এড়িয়ে চলুন। অতিরিক্ত জনসমাগমেও এই হিট স্ট্রেস হতে পারে। তাই নিজের সাবধানতা নিজেই বজায় রেখে চলুন।