শাহাজাহান আলি, মেদিনীপুর: বর্ষার মুখে খাল সংস্কার করেই কি ঘটল বিপত্তি? সাতসকালে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল তিনতলা পাকাবাড়ি! বরাতজোর রক্ষা পেল একটি পরিবার। ঘটনায় শোরগোল পড়ে দিয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালের দাসপুরে।

আরও পড়ুন: শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন থেকে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ সোনা ও টাকা , চাঞ্চল্য খড়গপুরে

দাসপুর ২ নম্বর ব্লকের নিশ্চিন্তপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় খালের জমিতে ওই তিনতলা বাড়ি তৈরি করেছিলেন নিমাই সামন্ত নামে এক ব্য়ক্তি। পরিবারের লোকেদের দাবি, গত কয়েক দিন ধরে একটু একটু ভিত বসে যাচ্ছিল। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে শনিবার সকালে বাড়িতে বাইরে বেরিয়ে আসেন তাঁরা। এর কিছুক্ষণ পরে চোখের সামনে আচমকাই ভেঙে পড়ে বাড়িটি! চিৎকার শুনে এলাকায় ভিড় জমান বহু মানুষ। ঘটনাস্থলে চলে আসেন পঞ্চায়েতের লোকেরাও। নেহাত বাড়ির ভিতরে কেউ ছিল না, না হলে বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটত, সে বিষয়ে সন্দেহ নেই কারও।

আরও পড়ুন: সুন্দরবনে কাকড়া ধরতে গিয়ে বাঘের হামলা, ফের প্রাণ হারলেন এক মৎস্যজীবী

কেম এমনটা ঘটল? স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, পঞ্চায়েতের অনুমতি ছাড়াই বেআইনিভাবে খাল দখল করে বাড়িটি তৈরি করেছিলেন নিমাই। তার উপর শুক্রবার খালের একাংশ সংস্কার করা হয়। রাতভর চলে বৃষ্টিও। এলাকাবাসীর দাবি, জোড়া ধাক্কা সামলাতে না পেরেই শনিবার সকালে তিনতলা পাকাবাড়িটি ভেঙে পড়ে। নিশ্চিন্তপুর পঞ্চায়েতের উপ-প্রধান সুভাষ মণ্ডলও বলেন, 'পঞ্চায়েতের অনুমতি ছাড়াই নিমাই সামন্ত গোমড়াই খাল দখল করে চার তলা বাড়ি নির্মাণ করেছিলেন। গোমড়াই খাল সংস্কারের জেরেই হয়তো এমন বিপত্তি।' এদিকে এই ঘটনার পর থেকে বাড়ির মালিক নিমাই সামন্ত বেপাত্তা বলে জানা গিয়েছে।