সঞ্জীব কুমার দুবে, পূর্ব মেদিনীপুর-অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের প্রাপ্ত পেনশেন নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠল পূর্ব মেদিনীপুরে। বাড়তি পেনশন পাইয়ে দেওয়ার নামে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্কুল পরিদর্শকের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, যাতায়াত বাবদ ওই টাকা নেওয়ার জন্য রীতিমত তাঁদের ফর্ম ফিলাপ করানো হয়। এই অভিযোগের তীব্র সমালোচনা করেছেন শিক্ষক মহলের একাংশ।

আরও পড়ুন-ভ্রমণ প্রেমীদের জন্য সুখবর, পুজোর মুখেই পর্যটনের জন্য খুলল সুন্দরবন

জানাগেছে, কাঁথি উত্তর চক্রের অফিসে বৃহস্পতিবার অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকরা পেনশন পেতে তাঁদের জন্য ফর্ম ফিলাপের আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু প্রতিটা ফর্ম ফিলাপের জন্য অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে অবর বিদ্যালয় পরিদর্শকের বিরুদ্ধে। ওই টাকা না দিলে কোনও ভাবেই ফর্ম ফিলাপ করে জেলা দফতরে জমা করা যাবে না। 

আরও পড়ুন-'বাংলায় আশ্রয় পাচ্ছে সন্ত্রাসবাদীরা, জঙ্গলমহলে বাড়ছে নকশালবাদ', দুর্গাপুরে কৈলাসের নিশানায় মমতা

রাজ্য সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, ২০১৬ সালের পর অদ্যাবধি যে সমস্ত শিক্ষক অবসর নিয়েছেন। রোপা ২০১৯ অনুযায়ী তাঁরা বাড়তি বেতন পাবেন। সেই উদ্দেশ্যেই অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ফর্ম ফিলাপের আয়োজন করা হয়। সেখানেই যাতায়াতের খরচ বাবদ বাড়তি টাকা চাওয়া হয় বলে অভিযোগ। এখনও অবদি কুড়ি জন শিক্ষক বাড়তি টাকা দিয়েই বেশি পেনশনের আশায় ফর্ম ফিলাপ করেছেন। যদিও, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন স্কুল পরিদর্শক সন্তু সিং। তিনি বলেন, ''অফিসে কে কোথায় টাকা নিচ্ছে আমার জানা নেই, আমি বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেব''।