প্রতিক্ষার অবসান। আবারও খুলছে সুন্দরবন। পুজোর মুখে ভ্রমণ পিপাসুদের আবেদন নিবেদন সুন্দরবনকে পর্যটকদের জন্য খুলে দিলে বন দফতর। তবে করোনা বিধি মেনে সুন্দরবনে ভ্রমণ করতে হবে পর্যটকদের। ভ্রমণের সময় পর্যটকদের মাস্ক, স্যানিটাইজার, দূরত্ব বিধি মেনে চলার নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। এছাড়াও পর্যটন কর এবং অন্যান্য অনুমতির জন্য শীঘ্রই অনলাইন প্রক্রিয়া চালু করতে চলেছে বন দফতর। তবে এক ধাক্কায় বেড়েছে  সুন্দরলবন ভ্রমণের কর, লঞ্চভাড়া।

আরও পড়ুন-পর্যটকদের জন্য খুলল সুন্দরবন, চলুন এবার পুজোয় দেখে আসি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার

২৩ সেপ্টেম্বর বুধবার থেকে সুন্দরবনে পর্যটকদের ভ্রমণের অনুমতি দিয়েছে বন দফতর। তবে আগে যে টাকায় সুন্দরবন ঘোরা হত। এখন তার থেকে বেশি টাকা খরচ করতে হবে পর্যটকদের। যদিও সুন্দরবনের সব জায়গা ঘোরার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

আরও পড়ুন-পারিবারে অশান্তির মর্মান্তিক পরিণতি, বাঁকুড়ায় ছোট ভাইকে 'পিটিয়ে খুন' করল দাদা

সুন্দরবন ভ্রমণের জন্য বন দফতরের বিধি নিষেধ মেনে চলতে হবে পর্যটকদের। শুধুমাত্র, লঞ্চ বা ভুটভুটি করে নদীবক্ষে ঘুরতে পারবেন পর্যটকরা। কোনও পর্যটকদের এখনই সুন্দরবনের সজনেখালি, সুধন্য়খালি সহ আরও কিছু জায়গায় প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। আনলক পর্বে একের পর এক পর্যটন খুলছে। তখন সুন্দরবনও পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়ার আবেদন জানিয়েছিলেন এই ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বহু মানুষ। এই পেশার সঙ্গে যুক্ত থাকা বহু মানুষ এখন কর্মহীন। তাই পুজোর আগে সুন্দরবন খুললে নতুন করে রোজগারের পথ খুঁজে পাবেন ব্যবসায়ী থেকে কর্মীরা।   

আরও পড়ুন-খড়দহে বিদায়ী কাউন্সিলরের বাড়িতে পড়ল বোমা, পিছনে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল

আনলক ওয়ান পর্বে ৫ জুন থেকে সুন্দরবন খুলে দেওয়া হয়েছিল। সেক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশিকা দিয়েছিল বন  দফতর। কিন্তু দেড় মাসের মধ্যে অনির্দিষ্টকালের জন্য ফের বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল সুন্দরবন। ক্যানিং মহকুমা জুড়ে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলায় পর্যচন বন্ধ করে দিয়েছিল বন দফতর। পুজোর মুখে নতুন করে পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন খোলায় রোগজারের আশায় এ পেশার সঙ্গে জড়িতরা।