কয়েকদিন আগেই আফগানিস্তানের তালিবানদের সঙ্গে মার্কিন প্রশাসনের বহু প্রতিক্ষিত শান্তি চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী তালিবানরা চললে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথাও জানিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। আর এই চুক্তির কয়েকজিনের মধ্যেই পাকিস্তানে স্থানবদল করা হল জইশ-ই-মহম্মদের প্রধান মাসুদ আজহারের। আন্তর্জাতিক জঙ্গি হিসাবে ঘোষিত মাসুদকে বাহওয়ালপুর হেডকোয়ার্টার থেকে সরান হল রাইলপিন্ডিতে। মাসুদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার স্বার্থেই এই রদবদল বলে জানা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: নজির স্থাপন করলেন শতায়ু বৃদ্ধ, করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফিরলনে সুস্থ হয়ে

ট্রাম্প প্রশাসনের চাপেই আজহাররে পাকিস্তান সেনার প্রধান কার্যালয় রাওলপিন্ডির জেলারেল হেডকোয়ার্টারে পাঠান হল কিনা সেই বিষয়ে অবশ্য ইমরান সরকার কিছু জানায়নি। কেবল  নিরাপত্তার কারণে গত ৩ মার্চ তাকে রাওলপিন্ডিতে তাঁকে আনা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। মাসুদের সঙ্গে তার ভাই তথা জইশের অন্যতম প্রধান নেতা  মৌলানা রউথ আসগারকেও রাওলপিন্ডিতে নিয়ে আসা হয়েছে।

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কের মধ্যেই মথুরা মেতেছে উৎসবে, গোকুলে পালিত হচ্ছে 'ছাদি হোলি', দেখুন ভিডিও

কয়েকদিন আগেই দোহায় তালিবানদের সঙ্গে আমেরিকার শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই চুক্তির ফলে আমেরিকা ও ন্যাটো আগামী ১৪ মাসের মধ্যে আফগানিস্তান থএকে সেনা সরিয়ে নেবে। এই শান্তিচুক্তির সময় উপস্থিত ছিলেন ভারতের প্রতিনিধিও। এই চুক্তির পর তালিবানদের শুভেচ্ছা জানান আজহার। 

 

 

এদিকে ১৯৯০ দশক থেকেই তালিবানদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে জইশ-ই-মহম্মদের প্রধানের। মোল্লা ওমর থেকে আখতার মনসুর হয়ে বর্তমানে হাবিতুল্লা আখুনদাজা এবং হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রধান জালাউদ্দিন ও তার ছেলে সিরাজুদ্দিন সকলের সঙ্গেই ঘনিষ্ঠতা রয়েছে মাসুদের।