গত সপ্তাহেই পাক অধিকৃত কাশ্মীরের আবহাওয়ার খবর সম্প্রচার করা শুরু করেছে ভারত। স্বাধীনতার পর গত শুক্রবারই প্রথমবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরের মীরপুর, মুজাফ্ফরতুর ও গিলগিটের তাপমাত্রা সংক্রনান্ত আবহাওয়ার খবর দূরদর্শ ও অলইন্ডিয়া রেডিওতে সম্প্রচার করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক জানিয়েছে, এখন থেকে ডিডি নিউজ ও অল ইন্ডিয়া রেডিওতে নিয়মিত পিওকে-র আবহাওয়ার প্রতিবেদন সম্প্রচার করা হবে। তারই জবাব দেওয়ার জন্য ময়দানে নেমেছিল পাকিস্তান। কিন্তু প্রথম চেষ্টাতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসির খোরাক হতে হল ইসলামাবাদকে।

ছবিতে দেখুন: লকডাউন তোলার একমাস কাটতে না কাটতেই বিপত্তি, ফের করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ উহানে

আরও পড়ুন: ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা ছাড়াতে পারে এক লাখ, লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে দিলেন বরিস জনসন

রবিবার পাক সরকারি মিডিয়া ‘রেডিও পাকিস্তান জম্মু ও কাশ্মীরের ওয়েদার আপডেট দেয়। কিন্তু লাদাখের আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিতে গিয়েই গণ্ডগোল পাকিয়ে বসল ইমরান খানের দেশ। পাকিস্তানি রেডিওর তরফে ট্যুইট করা হয়, লাদাখের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা -৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা -১ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। কিন্তু বাস্তবে  -১ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রা -৪ ডিগ্রির চেয়ে বেশি। ইটের বদলে পাথর ছুঁড়তে গিয়ে ময়দানে  কার্যত আত্মঘাতী গোল করে বসে পাকিস্তান। ইসলামাবাদ লাদাখের আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিতে গিয়ে সর্বোচ্চকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা হিসেবে উল্লেখ করে বসায় ট্যুইটারে হাসির রোল ওঠে। সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক রসিকতার মুখে পড়তে হয় পাকিস্তানকে। 

 

 

ভারতের জাতীয় সংবাদ মাধ্যম  পাক অধিকৃত কাশ্মীরের আবহাওয়ার তথ্য দেওয়ার পরেই পাকিস্তানের তরফে এমন কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে আশা করা হচ্ছিল। কিন্তু তা করতে গিয়ে প্রথমেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তারা খোরাক হবেন এটা কেউ ভাবতে পারেনি। ওই ট্যুইট প্রকাশ্যে আসতেই পাকিস্তানের কমন সেন্স ও অঙ্কের জ্ঞান নিয়ে খিল্লি করতে শুরু করেন নেটিজেনরা। 

 

 

 

 

এদিকে সরকারি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ইতিমধ্যে পাক সরকারের বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে,পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে ভারত নিজের বলে দাবি করলেও, তা যুক্তিগ্রাহ্য নয়। এই দাবি ভিত্তিহীন, বাস্তবসম্মত নয়। ভারত জোর করে রাজনৈতিক মানচিত্র তৈরি করতে চাইছে বলে অভিযোগ করেছে পাকিস্তান। এই ধরণের পদক্ষেপের জন্য রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের তারা দ্বারস্থ হতে পারে বলেও  হুঁশিয়ারি দিয়েছে পাকিস্তান।