প্রত্যেক বাঙালিই সারাবছর পুজোর জন্য অপেক্ষায় থাকেন।বলা ভাল শুধু বাঙালিই কেন ,যে একবার এই দুর্গা পুজোতে সামিল হয়েছেন তারই মায়া পরে যায়। এবার বর্ষা দেখে বিক্রেতারা ভয় পাচ্ছিলেন,যে আদৌ কেউ  পুজোর শপিং করবে কিনা । তবে সেটা ভুল প্রমাণ করে দিতে প্রায় প্রতিদিন প্রচুর মানুষ পুজোর কেনাকাটি করছেন।এখন অবশ্য সারাবছর একটা কেনার হুজুগ চলে বাঙালিদের মধ্যে। তবুও পুজোর কেনাকাটি সেই সব ছাড়িয়ে যায়। কারণ এর সাথে মিশে থাকে বাঙালির আবেগ। 

আরও পড়ুন, পুজোয় এবার নজর কারুন হাল ফ্যাশনের ব্যাগে, জেনে নিন ট্রেন্ডের তালিকা

এই বছর গড়িয়াহাট-এর মোড়ের ফুটপাথের দুইধারেই ভালই বিক্রি হচ্ছে। যদিও ফুটপাথ বিক্রেতারা দাবি করছেন, বিক্রিটা নাকি আরও ভাল হতে পারত।চাদরের দোকানে কিংবা জুতোর দোকানে সব জায়গাই ক্রেতার ভিড়।সবাই যে দরদাম করেই চলে যাচ্ছেন এমনটা নয়। বেশিরভাগ ক্রেতারাই মোহিত হয়ে যান,বিক্রেতাদের বলা কথাতে।তারপর হয়তো বাজেট ফেল করে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন এক গুচ্ছ জিনিস। 

আরও পড়ুন, পুজোর আগেই ফিটনেসের পাঠ পড়ালেন মালাইকা, হাত-পায়ের মেদ কমান সহজেই

গয়নার দোকানেও ভালই ভিড়।গলায় কিংবা কানে  পরে আয়নায় বারবার দেখে নিচ্ছেন যে কেমন লাগছে তাঁকে।তবে এখন মেটালিক দুল-হার বেশি চলছে। যাইহোক শেষমেশ তুমুল জোরে বর্ষাও আটকাতে পারলনা কাস্টমারের ভিড়।বরং যেনও তারা আগে থেকেই প্রস্তুত ছিলেন,তাই ছাতা নিয়েই দিব্যি কেনাকাটি করছেন।নতুন জামা কাপড়ে বৃষ্টির ছোঁওয়া লাগাতে এখন  বাঙালি বেশ ভালবাসে।