ফরাসি টেনিস ফেডারেশনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে আপাতত ফ্রেঞ্চ ওপেন টেনিস প্রতিযোগিতা পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ফ্রান্সে মহামারীর আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। এই অবস্থায় কোনও ঝুঁকি নিতে চায় না ফরাসি টেনিস ফেডারেশন। যার জেরে আপাতত প্রায় ৪ মাসের জন্য পিছিয়ে যেতে চলেছে ফ্রেঞ্চ ওপেন। শুধুমাত্র ফ্রান্সেই নয়, সারা পৃথিবী জুড়ে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে করোনা ভাইরাসের জেরে। রোলা গ‍্যারোঃতে মে মাসের বদলে টুর্নামেন্টটি শুরু হতে চলেছে সেপ্টেম্বরের ২০ তারিখ থেকে। চলবে অক্টোবরের ৪ তারিখ অবধি। 

আরও পড়ুনঃএবার করোনার কবলে জাপান অলিম্পিক কমিটির সহ সভাপতি

সারা পৃথিবী এখন করোনার গ্রাসে আক্রান্ত। প্রতিযোগিতায় যারা খেলবেন এবং যারা প্রতিযোগিতাটি আয়োজন করবেন তাদের তাদের সকলের স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষার কথা ভেবেই ফরাসি টেনিস ফেডারেশন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে সকলে মনে করছেন। মে মাসের ২৪ তারিখ থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল ফ্রেঞ্চ ওপেন। সেই সময় পরিস্থিতি কেমন থাকবে তা জানা সম্ভব নয় এখন। কিন্তু এই মুহুর্তে যা পরিস্থিতি তাতে প্রতিযোগিতার আয়োজন সম্পূর্ণ করা সম্ভব হবে কিনা তা নিয়ে বড় প্রশ্নচিহ্ন থেকে যাচ্ছে। টুর্নামেন্ট আয়োজনকারী কর্মীদের সুরক্ষা তাদের কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বলে দাবি করেছে ফরাসি টেনিস ফেডারেশন। তাইজন্যই প্রতিযোগিতা আপাতত পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

আরও পড়ুনঃইতালির একই ক্লাবের ৭ জন প্লেয়ার করোনায় আক্রান্ত, আরও ভয়াবহ হচ্ছে পরিস্থিতি

আরও পড়ুনঃকরোনার থাবা অব্যাহত ফুটবল বিশ্বে, আক্রান্ত ফ্লেমিঙ্গোর ফুটবল কোচ জর্জ জেসাস

শুধু টেনিস কিংবা ফ্রেঞ্চ ওপেন নয়, সারা বিশ্বজুড়ে একাধিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। করোনা আতঙ্কে পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে কোপা আমেরিকা এবং ইউরোর মতো বড় বড় ফুটবল প্রতিযোগিতা গুলিও। আবার এক বছর পর আয়োজিত হতে চলেছে এই টুর্নামেন্ট।