গত সপ্তাহেই পাকিস্তানকে গুড়িয়ে দিয়ে ডেভিস কাপের পরের পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে ভারত। আর কঠিন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে ভারতীয় দলকে কোর্টে নেতৃত্ব দিয়েছেন বর্ষীয়ান লিয়েন্ডার পেজ। দেশের জার্সিতে খেলার পাশাপাশি নিজের রেকর্ডকেই ছাপিয়ে গিয়েছেন লিয়েন্ডার। এবার যখন লিয়েন্ডারের ডাক পরে তখন পাকিস্তানার বিরুদ্ধে ইসলামাবাদে খেলতে যেতে রাজি ছিলেন না ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রা। সর্বভারতীয় টেনিস সংস্থার আর্জি শুনে কোর্টে নামতে রাজি হয়ে যান লিয়েন্ডার। পরে অবশ্য আন্তর্জাতিক টেনিস সংস্থা পাকিস্তান থেকে ম্যাচ সরিয়ে দেয়। কিন্তু এআইটিএ লেয়িন্ডারে দল থেক সরিয়ে দেয়নি। এতে কিছুটা হলেও চটে গিয়েছেন মহেশ ভূপতি রোহন বোপান্না।  লিয়েন্ডার ওতাঁর দল দেশের মান রেখেছেন পাকিস্তানকে একটাও ম্যাচ জেতার সুযোগ না দিয়ে। 

আরও পড়ুন - অলিম্পিকের স্বপ্নে ধাক্কা, ডোপ টেস্টে ব্যর্থ হয়ে নির্বাসিত ভারতীয় বক্সার

এমন একটা অবস্থায় দাঁড়িয়ে সোমবার লিয়েনাডার জানিয়েছেন, যে কোনও পরিস্থিতিতে তিনি দেশের জন্য খেলতে তৈরি। দেশেরা জার্সি গায় দিয়ে যখন খেলতে নামেন তখন নিজেকে একজন সৈন্য বলেই মনে করেন লি। বলছেন, ‘এজন সৈন্য যখন দেশের হয়ে যুদ্ধ করে তখন সে জানতে চায় না কাদের বিরুদ্ধে কোথায় গিয়ে লড়াই করতে হবে। একজন খেলোয়াড় হিসেবে টেনিস ব়্যাকেট হাতে আমরা দেশের প্রতিনিধিত্ব করি। কোনও প্রশ্ন না করে দেশের হয়ে সেরাটা দেওয়াই আমাদের কাজ। ’ অনেকেই মনে করছেন এমন কথা বলে লিয়েন্ডার নাম না করে মহেশ-রোহনদের পাকিস্তান না যাওয়ার সিদ্ধান্তকেই একহাত নিয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুন - টি-২০ ক্রিকেটে নতুন ইতিহাস লিখলেন নেপালের গৃহবধূ

এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে নিজের অবসের নিয়েও মুখ খোলেন ভারতের সব থেকে সফল টেনিস খেলোয়াড়া। ৩০ বছর ধরে ডেভিস কাপে দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন লিয়েন্ডার। এখন তাঁর বয়েস ৪৬ বছর। লিয়েন্ডার বলছেন, ‘আমার অভিজ্ঞতা আমাকে এখন এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তবে যদি আগামী দিনের দিকে তাকই, তাহলে মনে হচ্ছে না আর বছর খানের বেশি আমর পক্ষে খেলা সম্ভব। একই সঙ্গে ভারতীয় টেনিস ফেডারেশনের কাছে লিয়েন্ডারের আর্জি আগামী দিনের জন্য তরুণ খেলোয়াড়দের বাছা হোক। যারা টানা দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পারেব। 

আরও পড়ুন - রবিবার দলকে করলেন চ্যাম্পিয়ন, সোমবার বিয়ের পিঁড়িতে ভারতীয় ক্রিকেটার