নিউজিল্যান্ডের মাটিতে প্রথম টেস্ট ম্যাচ চলা কালিন বর্ণবৈষম্যের শিকার হয়েছিলেন ইংল্যান্ড পেসার জোফরা আর্চার। এই ঘটনাটি ঘটে সোমবার প্রথম টেস্টের শেষ দিনে। ব্যাটিং করার সময় জোফরার দিকে বর্ণ নিয়ে কটুক্তি করেন স্টেডিয়ামের কিছু সংখ্যক দর্শকরা। আর সেই কারণে খেলার শেষ হওয়ার পরেই টুইটরে এই বিষয় নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন ইংল্যান্ড পেসার। আর তারপরই বেশ এই বিষয় নিয়ে কাজ শুরু করে দেয় নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। এবার জোফরার এই বিষয় নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট। সম্ভবত বর্ণ বিদ্বেষ করে ইংল্যান্ড পেসারকে ওমন মন্তব্য করায় এবার সেই দর্শককেই আজীবন ক্রিকেট মাঠ থেকে নির্বাসিত করে দেবে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। তাঁকে চিহ্নিত করে তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। একই সঙ্গে আর্চারের থেকে একান্ত ভাবে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও।

আরও পড়ুন, অস্ট্রেলিয়ায় ভারত-পাক মৈত্রী, পাক ক্রিকেটার ও ভারতীয় ট্যাক্সি চালকের গল্প ভাইরাল

নিউজিল্যান্ড বোর্ডের তরফ থেকে তাঁদের চিফ এক্সিকিউটিভ ডেভিড হোয়াইটও আর্চারের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, এটা খুব খারাপ ঘটনা। প্রথমত সেই লোককে চিহ্নিত করতে পারলে আমরা তাঁকে পুলিশের হাতে তুলে দেবো। দ্বিতীয়ত ক্রিকেট মাঠে এমন দর্শককে আর ঢুকতে দেওয়া হবে না। ক্রিকেট মাঠ থেকে তাঁকে নির্বাসিত করা হবে। এই বিষয় নিয়ে আমাদের বেশ কিছু কাজ এগোতে হবে। আর সেটা নিয়ে আমরা কাজ করতে শুরু করে দিয়েছি।

আরও পড়ুন, বাবা সৌরভের থেকে কী শিখেছেন মেয়ে সানা, মজার উত্তর ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের পাশাপাশি দলের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও ক্ষমা চেয়ে নেন জোফরার কাছে। এই বিষয় নিয়ে তিনি বলেন, আমি কিউয়িদের পক্ষ থেকে ক্ষমা প্রার্থী। আমি তাঁদের পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। শুধু দলের তরফ থেকে নয় গোটা দেশের তরফ থেকেও আমি আর্চারের কাছে ক্ষমা চাইছি। এটা একটা খারাপ জিনিস। এই দেশে এমন একটা জিনিস হওয়াটাও চিন্তার বিষয়। আশা করি বোর্ড এটা নিয়ে একটা বড় পদক্ষেপ নেবে। সোমবার ইংল্যান্ডকে ইনিংসে প্রথম টেস্ট হারায় নিউজিল্যান্ড দল। তবে খেলা শেষ হওয়ার আগেই জোফরার সঙ্গে এই ঘটনা। আর সেটা নিয়েই এবার সেই দর্শকের বিরুদ্ধে বড় পদক্ষেপ নেওয়ার কথা ভাবছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।