দুদিন কেটে গেলেও এখনও পুরোপুরি সংকটমুক্ত  নন প্রাক্তন কিংবদন্তী ফুটবলার পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে আগের থেকে তার অবস্থা অনেকটা স্থিতিশীল। তবে নিউমোনিয়া, পারকিনসন, ডিমেনশিয়ার সমস্যা এখনও রয়েছে প্রাক্তন ফুটবলারের।  মেডিকা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ডঃ তন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়, নন্দিনী বিশ্বাসের নেতৃত্বে গঠিত মেডিকেল বোর্ড   পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমস্ত শারীরিক পরিস্থিতির দেখভাল করছে।  একইসঙ্গে ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সের ডাক্তারও সমস্ত পরিস্থতিরি পর্যালোচনা করছেন।

আরও পড়ুনঃআই লিগ জিততে বাগানের দরকার ৬ পয়েন্ট, বেইতিয়াদের পরবর্তী লক্ষ্য মিশন চেন্নাই

দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়। এর আগেও দু-বার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার রাতে ফের অসুস্থ হয়ে পড়ে এই প্রাক্তন ফুটবলার। বুকে সংক্রমণ, শ্বাসকষ্ট, পার্কিনসন সহ একাধিক সমস্যা ধরা পড়ে। চিকিতসার জন্য গঠন করা হয় মেডিক্যাল বোর্ডও।  প্রতি মুহূর্তের খবর দেওয়া হয় পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির পরিজনদের। অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয় অত্যন্ত সংকটজনক পি কে। খবর ছড়িয়ে পড়তেই উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে ক্রীড়া তথা রাজনৈতিক মহলে। পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়কে হাসপাতেল দেখতে যান প্রাক্তন ফুটবলার তথা বর্তমান তৃণমূল সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃকরোনাভাইরাসে কি এবার বাতিলের মুখে আইপিএল, বিসিসিআই জানাল তাদের অবস্থান

আরও পড়ুনঃকরোনাভাইরাস আতঙ্কে কাবু ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল,শ্রীলঙ্কা সফরে হাত না মেলানোর সিদ্ধান্ত

মঙ্গলবার থেকে অবস্থার খানিক উন্নতি হয় পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়ের।  শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা কিছুটা কম হওয়ায় ভেন্টিলেশন থেকে বের করা প্রাক্তন তারকা ফুটবলার তথা কোচকে। আইসিইউতে রাখা হয় তাকে। বুধবার অবস্থার আরও কিছুটা উন্নতি হলেও, এখনও পুরোপুরি সংকটমুক্ত নন পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়। অর্জুন পুরষ্কার, পদ্মশ্রী পুরষ্কার, বিংশ শতাব্দীর সেরা ভারতীয় ফুটবালরের সম্মান প্রাপ্ত ফুটবলারের দ্রত আরোগ্য কামনা করেছেন সর্ব স্তরের মানুষ।