নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে ভারতীয় দল। আজ হ্যামিল্টনে সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে নামতে চলেছে দুই দল। আজ জিতলেই দুই ম্যাচ বাকি থাকতে সিরিজ পকেটে পুরে ফেলবে মেন ইন ব্লু। একইসঙ্গে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে প্রথমবার কোনো টি-টোয়েন্টি সিরিজ জেতার কৃতিত্ব অর্জন করবে কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল। এই মুহুর্তে টি-টোয়েন্টি তে দুর্ধর্ষ ফর্মে রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। এই ফরম্যাটে লাগাতার ৫ টি ম্যাচ জিতে আজ মাঠে নামতে চলেছে তারা

উল্টোদিকে নিউজিল্যান্ডের সাম্প্রতিক ফর্ম একেবারেই ভরসা করার মতো নয়। শেষ ৫ টি ম্যাচের ৪ টি তেই হারতে হয়েছে কেন উইলিয়ামসনদের। এই সিরিজেও তাদের পারফরম্যান্স বলার মতো নয়। প্রথম ম্যাচে ব্যাটিং-এ বড় রান তুললেও, বোলিংয়ে হতশ্রী পারফরম্যান্স দেখা গিয়েছিল। দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাটিং, বোলিং দুই বিভাগের অবস্থাই হয়ে দাঁড়িয়েছিল শোচনীয়। ওপেনারদ্বয় ছন্দে থাকলেও মিডল অর্ডার ভুগছে ধারাবাহিকতার অভাবে। ফলে দলে কিছু পরিবর্তনের সম্ভাবনা রয়েছে। অল-রাউন্ডার 'ডি-গ্র্যান্ডহোম' দুটি ম্যাচেই ব্যার্থ। তার বদলে দলে আসতে পারেন আর এক পেস বোলিং অল-রাউন্ডার স্কট কাগগ্লেজিন। টসে জিতলে আজ আগে বোলিং নিতে পারে কিউইরা। ভারতের রান তারা করার ক্ষমতা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন কেন উইলিয়ামসন। যদিও সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলে গেছেন টস কারোর হাতে নেই।

অপরদিকে ভারতীয় শিবিরে পরিবর্তনের সম্ভাবনা কম। একমাত্র পরিবর্তন হতে পারে শার্দুল ঠাকুরের জায়গায়। দুটি ম্যাচেই বোলিংয়ে তেমন কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি তিনি। প্রথম ম্যাচে উইকেট পেলেও প্রচুর রান খরচ করেছেন। দ্বিতীয় ম্যাচে তাকে দিয়ে মাত্র ২ ওভার বল করান কোহলি। যদিও তার ব্যাটের হাত ভালো। তবে এই মুহূর্তে ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা যে ফর্মে রয়েছেন তাতে শার্দুলের লোয়ার-অর্ডার ব্যাটিংয়ের প্রয়োজন হয়তো পড়বে না। তার বদলে দলে আসতে পারেন আর এক তরুণ পেসার নভদীপ সাইনি। বিগত ওয়ান ডে সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তার বোলিং মনে ধরেছে সকলের।