এবছরের অলিম্পিক আগামী ২৪ জুলাই থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের জন্য তা স্থগিত করে দিতে হয়েছে। করোনা ভাইরাসের থাবায় আধুনিক অলিম্পিকের ১২৪ বছরের ইতিহাসে প্রথমবার ১ বছর পিছিয়ে গিয়েছে  প্রতিযোগিতা। গত ৩০ মার্চ অলিম্পিকের পরবর্তী ক্রীড়াসূচি ঘোষণা করে জানানো হয়, আগামী বছর ২৩ জুলাই শুরু হবে অলিম্পিক। শেষ ৮ আগস্ট। করোনা ভাইরাস শুধু অলিম্পিকে নয়, তাবা বসিয়েছে বিশ্ব অলিম্পিক দিবস পালনেও।

আরও পড়ুনঃকরোনা যোদ্ধাদের সম্মান জানাতে অভিনব উদ্যোগ ইসিবির

আজ বিশ্ব অলিম্পিক দিবস। প্রতি বছর এই দিনটি জাঁকজমকের সঙ্গে পালন করা হয়। কিন্তু এবছর করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে সেই সাড়ম্বর নেই। প্রতিবারের মতো এবার আর সেভাবে দিনটি পালন করা হচ্ছে না। করোনাভাইরাসের কারণে সীমিত পরিসরে পালন হচ্ছে সব দেশেই। অলিম্পিকের ধারণা প্রচার করার উদ্দেশ্যে ১৯৪৭ সালে স্টকহোমে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি আইওসি'র ৪১তম অধিবেশনে বিশ্ব অলিম্পিক দিবস  পালনের প্রস্তাব রাখা হয়। পরের বছর আইওসি অধিবেশনে গিয়ে প্রস্তাবটি গৃহীত হয়।

আরও পড়ুনঃকরোনা ভাইরাসের জন্য স্থগিত হয়ে গল কিউইদের বাংলাদেশ সফর

আরও পড়ুনঃপাকিস্তানে ক্রিকেট দলে করোনার থাবা,আক্রান্ত তিন ক্রিকেটার

১৮৯৬ সালের এ দিনে প্রথমবারের মতো শুরু হয় আধুনিক অলিম্পিক গেমস। ফ্রান্সের প্যারিসে অনুষ্ঠিত এই ক্রীড়া উৎসব সময়ের হাত ধরে বিশ্বের সবচেয়ে সমৃদ্ধ ক্রীড়া উৎসবে পরিণত হয়েছে অলিম্পিক। বিশেষ এই স্মৃতিকে ধারণ করতে ১৯৪৮ সাল থেকে ২৩শে জুনকে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। বিশ্ব জুড়ে অ্য়াথলিটদের কাছে এই দিনটির গুরুত্বই আলাদা। এই বছর দিনটি সাড়ম্বরে পালিত না হলেও, দিনটিকে সম্মান জানাতে ভোলেননি অ্যাথলিটরা।