নতুন করে কোর্টে ফিরে আসতে মানসিকভাবে নিজেকে তৈরিই রেখেছেন লিয়েন্ডার। কিন্তু তার আশঙ্কা অন্য একটি বিষয় নিয়ে। অলিম্পিক কমিটি ২০২১ এও অলিম্পিক আয়োজন করতে পারবেন কিনা তা নিয়ে আশঙ্কায় রয়েছেন তিনি। টানা আটটি অলিম্পিকে অংশ নিয়ে অনন্য নজির গড়ার ইচ্ছে পোষণ করে থাকেন তিনি। কিন্তু বর্তমান বিশ্বে দাঁড়িয়ে তার সেই নজির সম্পূর্ণ হবে কিনা সেই নিয়ে রীতিমতো প্রশ্নচিহ্ন উঠে রয়েছে। 

আরও পড়ুনঃপরের মরসুম থেকে অন্য রাজ্যের হয়ে খেলার সিদ্ধান্ত নিলেন অশোক দিন্দা

বুধবার ৪৭ বছরে পা দিয়েছেন পেজ। তিনি অনেক আগেই ঘোষণা করে দিয়েছিলেন যে ২০২০ মরশুম অবধি খেলেই অবসর নেবেন। টোকিও অলিম্পিকে অংশ নিচ্ছিলেন। মনে করা হচ্ছিল অলিম্পিক খেলেই তাকে অবসর নিতে দেখা যেতে পারে। কিন্তু সেই সমস্ত যাবতীয় পরিকল্পনা আপাতত ভেস্তে গিয়েছে। লিয়েন্ডার নিজে "ইন্ডিয়ান চেম্বার অফ কমার্স" আয়োজিত একটি ওয়েবনারে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জানিয়েছেন যে পরের বছর অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করা নিয়েও সন্দিহান রয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুনঃকরোনা ভাইরাস কাড়ল আরও এক কিংবদন্তী ফুটবলারের প্রাণ

আরও পড়ুনঃ২০২৩ বিশ্বকাপ খেলার বিষয়ে আশাবাদী শ্রীসন্থ

তিনি জানিয়েছেন তিনি ব্যাক্তিগতভাবে চান টোকিও অলিম্পিক খেলেই অবসর নিতে। কিন্তু তা ২০২১ এ পিছিয়ে গিয়েছে এখন। সারা বিশ্ব জুড়ে অর্থনৈতিক জগৎ বড়সরো ধাক্কার মুখে পড়েছে। কিকরে চুক্তিবদ্ধ বহুজাতিক সংস্থা গুলি নিজেদের ক্ষতি সামলে অলিম্পিক আয়োজন করবে তা নিয়ে ভাবিত তিনি। কোনও ভ্যাক্সিনের অনুপস্থিতিতে টোকিও অলিম্পিক আয়োজন আরও কঠিন হবে বলে মনে করেন লিয়েন্ডার।