ট্রাম্পের সৌজন্য বিনিময় ভাইরাল নেট দুনিয়ায়। শনিবার দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমেরিকার ২৪৪ তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী লিখেছিলেন,'আমেরিকার ২৪৪ তম স্বাধীনতা দিবসে সবাইকে ও প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্পকে শুভেচ্ছা। বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র হিসেবে আমরা স্বাধীনতা ও মানবতা উদযাপন করি।' এরই প্রত্যুত্তর দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প খুবই অল্পকথায় সৌজন্য ব্যক্ত করেছেন। তিনি লিখেছেন, ধন্যবাদ বন্ধু। আমেরিকা ভারতকে ভালোবাসে। ১৭৭৬ সালে ৪ জুলাই ব্রিটিশ শাসনমুক্ত হয়েছিল আমেরিকা। সেই দিনটিকে স্বাধীনতা দিবস হিসেবে উদযাপন করেন মার্কিন নাগরিকরা। 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রথম দিকে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে কিছুটা হলেও দূরত্ব বেড়েছিল ভারত মার্কিন সম্পর্কের। নরেন্দ্র মোদীকে রীতিমত ধমক লাগিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী রীতিমত উদ্যোগ নিয়ে সেই সম্পর্ক মেরামত করেন। করোনার ওষুধ পেয়ে রীতিমত খুশি হয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তারপর থেকেই দুই দেশের সম্পর্ক অটুট রয়েছে।

ভারতের 'প্রথম' বৃহন্নলা জোয়া খান কমন সার্ভিস সেন্টারে কাজ করছেন, সাধুবাদ জানিয়েছেন রবিশঙ্কর প্রসাদ .

গালওয়ানে প্রকৃতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিচ্ছে চিনা সেনার দিকে, রীতিমত কোনঠাসা অবস্থা লাল ফৌজের ..

পূর্ব লাদাখ সীমান্ত নিয়ে ভারত চিন সমস্যা যখন রীতিমত গম্ভীর হচ্ছে তখনও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও প্রশাসন ভারতের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছে। উল্টে চিনকে রীতিমত আক্রমন করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে দক্ষিণ চিন সাগরে চিনের আধিপত্য খর্ব করতে তৎপরতা বাড়িছে মার্কিন রণতরীগুলি। যা আদতে ভারতে সুবিধে করে দিয়েছে বলেও মনে করছেন সমর বিশেষজ্ঞরা। 

করোনা মোকাবিলায় 'গোল্ড মাস্ক' পুনের বাসিন্দার, রুপো থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে অভিনব উদ্যোগ ...


তবে ভারত ও মার্কিন দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে বন্ধুত্ব রীতিমত সমাদোর পেয়েছে নেটদুনিয়ায়। দুই রাষ্ট্র প্রধানের অনুগামীরাই স্বাগত জানিয়েছেন তাঁদের। তাঁদের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হোক বলেও আশা প্রকাশ করেছেন।