Asianet News Bangla

৩০ দিনের জন্য বন্ধ আমেরিকার দরজা, করোনা-আক্রান্ত হলিউড অভিনেতা টম হ্যাঙ্কস-ও

হু করোনাভাইরাস সংক্রমণকে 'গ্লোবাল প্যানডেমিক' ঘোষণা করল

এরপরই ৩০ দিনের জন্য ইউরোপ থেকে আমেরিকায় ভ্রমণ নিষিদ্ধ করা হল

এর জেরে বিশ্বব্যপী শে,য়ার বাজারে ধস নামল

হলিউড অভিনেতা টম হ্যাঙ্কস ও তাঁর স্ত্রী-ও আক্রান্ত

Coronavirus Pandemic, Trump bans all travel from Europe, Tom Hanks tests positive
Author
Kolkata, First Published Mar 12, 2020, 10:03 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

'গ্লোবাল প্যানডেমিক', অর্থাৎ বিশ্বব্যপী ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। বৃহস্পতিবার, এমনটাই ঘোষণা করেছে ওয়ার্ল্ড হেল্থ অর্গানাইজেশন বা হু। এরপরই আগামী ৩০ দিনের জন্য ইউরোপের যে কোনও দেশের জন্য বন্ধ হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দরজা। অন্যদিকে প্রখ্যাত হলিউড অভিনেতা টম হ্যাঙ্কস ও তাঁর স্ত্রী, দুজনেই এই রোগে আক্রান্ত বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন - বিশ্বের অন্তত ১২০টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা, শেষপর্যন্ত মহামারী ঘোষণা করল 'হু'

বুধবার রাত পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা ৩৭। আর আক্রান্তের সংখ্যা ১০০০ ছাড়িয়েছে। এদিন রাতেই প্রেসিজেন্ট ট্রাম্প ঘোষণা করেছেন, শুক্রবার থেকে শুরু করে ৩০ দিনের জন্য ইউরোপের বেশিরভাগ দেশ থেকেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হল। তবে এই নিষেধাজ্ঞাগুলি ব্রিটেনের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। ইউরোপিয় ইউনিয়নের মোট ২৬টি দেশ থেকে আসা বিদেশীদের ক্ষেত্রেই এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকরী করা হচ্ছে। মার্কিন নাগরিক এবং সেই দেশের বৈধ স্থায়ী বাসিন্দাদের এবং তাদের পরিবারদের এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় রাখা হয়নি। তবে বিমানবন্দরে পরীক্ষা দিয়েই তাদের দেশে ঢুকতে হবে।

আরও পড়ুন - কর্নাটকে গণকবর, মাটিতে জ্যান্ত পুঁতে দেওয়া হল ৬০০০ মুরগি

মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই ঘোষণার পরপরই বিশ্বব্যাপী শেয়ার বাজারে ধস নেমেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অস্ট্রেলিয়ার মতো ভারতের শেয়ার বাজারও এদিন সকাল থেকেই মুখ থুবরে রয়েছে। এমনকী ডলারের দামও পড়েছে। বিশ্ব বাজারে অপরিশোধিত তেলের দামও প্রায় ৬ শতাংশ কমেছে।

আরও পড়ুন - করোনার ভয় নেই মুরগিতে, অভয় দিচ্ছে স্বাস্থ্য় দফতর

অন্যদিকে, হলিউড অভিনেতা টম হ্যাঙ্কস-ও এই মারণরোগে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েচ্ছে। আক্রান্ত তাঁর স্ত্রী রিটা উইলসন-ও। ৬৩ বছরের এই প্রখ্যাত অভিনেতা জানিয়েছেন, যতক্ষণ পর্যন্ত জনস্বাস্থ্য ও সুরক্ষার প্রয়োজন হবে ততক্ষণ পর্যন্ত তাঁদের পরীক্ষা, পর্যবেক্ষণ ও বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকতে হবে। হ্যাঙ্কস অবশ্য মার্কিন ভূমিতে নয়, এই রোগ বাধিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ায়।  সেখানেই এখন তিনি ও তাঁর স্ত্রী আছেন। তাঁদের দুজনেরই জ্বর আসে। করোনাভাইরাস পরীক্ষা করাতে ফলাফল ইতিবাচক আসে। হ্যাঙ্কস-ই হলিউডের প্রথম বড়মাপের তারকা যিনি এই রোগে আক্রান্ত হলেন।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios